বিল গেটস ও মেলিন্ডার বিচ্ছেদের ঘোষণা

ডেস্ক নিউজ:
বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস (৬৫) ও তাঁর স্ত্রী মেলিন্ডা গেটস (৫৬) ২৭ বছরের সংসারের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন। বিচ্ছেদের ঘোষণায় তাঁরা বলেছেন, ‘আমরা এটা আর বিশ্বাস করতে পারছি না যে, আমাদের জীবনের পরের ধাপে দম্পতি হিসেবে আমরা একসঙ্গে থাকতে পারব।’ ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও দ্য গার্ডিয়ানের খবরে এমনটি বলা হয়েছে।

বিল গেটস ও তাঁর স্ত্রী মেলিন্ডা পৃথিবীর ধনাঢ্য পাঁচ দম্পতির একটি। বিল গেটসের সম্পত্তির পরিমাণ ১২৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। অনেকটা হঠাৎ করেই বিচ্ছেদের ঘোষণা দিলেন তাঁরা। দুই সপ্তাহ আগেও মহামারি মোকাবিলায় লড়াইরত চিকিৎসাকর্মীদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন দুজন।

সোমবার টুইটারে পোস্ট করা যৌথ বার্তায় গেটস দম্পতি বলেন, ‘ব্যাপক চিন্তাভাবনা করে আমরা বিয়ের সম্পর্কের সমাপ্তি ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

এ ছাড়া টুইটবার্তায় বিল গেটস ও মেলিন্ডা বলেন, ‘গত ২৭ বছরে আমরা অসাধারণ তিনটি সন্তান পেয়েছি। এমন একটা ফাউন্ডেশন গড়ে তুলেছি, যে ফাউন্ডেশন বিশ্বজুড়ে মানুষের স্বাস্থ্য ও সক্ষমতা নিয়ে কাজ করছে। আমরা যে বিশ্বাস থেকে ফাউন্ডেশনটি চালু করেছি, সেটা থাকবে। এই ফাউন্ডেশনের কাজ একসঙ্গে চালিয়ে যাব। কিন্তু আমরা এটা আর বিশ্বাস করতে পারছি না যে, আমাদের জীবনের পরের ধাপে দম্পতি হিসেবে আমরা একসঙ্গে থাকতে পারব।’

দ্য গেটস ফাউন্ডেশন মূলত বিশ্বের স্বাস্থ্যখাতের উন্নয়নে কাজ করে। ফাউন্ডেশনটি করোনাভাইরাসের চিকিৎসা ও টিকা তৈরিতে সবচেয়ে বড় তহবিল সরবরাহকারী। ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে তিনি বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার খরচ করতে চান বলে জানান বিল গেটস।

গেটস দম্পতির তিন সন্তান, জেনিফার (২৫), রোরি (২১) ও ফোয়েব (১৮)। ইনস্টাগ্রামে জেনিফার গেটস লিখেছেন, ‘আমাদের পুরো পরিবারের জন্য একটা দুঃসময় ছিল।’ জীবনের পরবর্তী ধাপে ব্যক্তিগত গোপনীয়তার বিষয়টি বোঝার জন্য সবাইকে অগ্রিম ধন্যবাদ দেন গেটস দম্পতির বড় মেয়ে জেনিফার।

এর আগে মেলিন্ডা বলেছিলেন, ‘তাদের বিয়েটা বেশ কঠিন পর্যায়ে ঠেকেছে। বিল নিয়মিত দিনের ১৬ ঘণ্টা কাজ করে। পরিবারের জন্য তাঁর সময় বের করা দুঃসাধ্য হয়ে যায়।’ ২০১৯ সালে ২৫তম বিবাহবার্ষিকীতে সানডে টাইমসকে তিনি এ কথা বলেন।

১৯৭৫ সালে মাইক্রোসফট প্রতিষ্ঠাকালেই বিলিয়নিয়র বিল গেটস। ১৯৮৭ সালে সেখানে যোগ দেন মেলিন্ডা। পরে ১৯৯৪ সালে তাঁরা বিয়ে করেন। আসলে বিয়েই করা উচিত কি না তা নিয়ে দ্বিধায় ছিলেন চরম কর্মব্যস্ত বিল গেটস। এর আগে মেলিন্ডা জানান, কাজ এবং পরিবারের মধ্যে ভারসাম্য বজায় রাখতে পারবেন কি না তা নিয়ে ব্যাপক মাত্রায় সন্দিহান ছিলেন বিল গেটস। এমনকি তিনি হোয়াইট বোর্ডে বিয়ের ভাল মন্দ দিকগুলো লিখতে শুরু করেন।

এতটা মেপে সিদ্ধান্ত নেওয়া মানুষটি এবার বিয়ের সম্পর্ক থেকে ইস্তফার ঘোষণা দিলেন।

সাম্প্রতিক বছরগুলোর মাঝে পৃথিবীর শীর্ষ ধনী দম্পতির বিচ্ছেদের দ্বিতীয় ঘটনা এটি। ২০১৯ সালে বিশ্বখ্যাত ই-কমার্স অ্যামাজনের প্রধান নির্বাহী জেফ বেজস তাঁর স্ত্রী ম্যাকেঞ্জি স্কটের সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটান। বিচ্ছেদের ফলে বেজসের স্ত্রী বিশ্বের চতুর্থ ধনী নারীতে পরিণত হন। ৩৮ বিলিয়ন ডলার পরিমাণ সম্পত্তি পান ম্যাকেঞ্জি।

মন্তব্য করুন

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্র রিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য বা বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরনের আপত্তিকর মন্তব্য বা বক্তব্য সংশোধনের ক্ষমতা রাখেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.