বিরামপুর সীমান্তে বিজিবি ও চোরাকারবারী সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষ

সোহেল রানা,হাকিমপুর (হিলি) দিনাজপুর প্রতিনিধি:

দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার দাউদপুর সীমান্তে চোরাকারবারি ও বিজিবি সদস্যদের মধ্যে সংঘর্ষে চোরাকাকবারিদের দেশীয় অস্ত্রের আঁঘাতে এক বিজিবি সদস্য গুরুতর আহত হয়েছেন। এ সময় বিজিবি সদস্যরা ৩ রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে নিজেদের আত্নরক্ষা করেছেন বলে জানা গেছে।

২০ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ জয়পুরহাট এর দাউদপুর সীমান্ত ফাঁড়ির ক্যাম্প কমান্ডা নায়েব সুবেদার আব্দুল মালেক জানান, ৮ ফেব্রæয়ারী বৃহস্পতিবার রাতে টহলদল সীমান্তের ২৯০ মেইন পিলারের ৪-৫ সাব পিলারের নিকটে ৪৫-৫০ জনের ফেন্সিডিল চোরাকারবারী দলকে ধাওয়া করলে চোরাকারবারীদলটি উল্টো বিজিবি সদস্যদের উপর আক্রমন চালায়। এতে বিজিবি সদস্য নওবাব আলি (২২) গুরুত্বর আহত হয় ।

এ সময় নিজেদেরে আত্বরক্ষার্থে সৈনিকরা ৩ রাউন্ড ফাকা গুলি ছুড়লে চোরাকারবারিরা ভারতের দিকে পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল থেকে ৯১ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করে। আহত সৈনিক নওবাব আলিকে জয়পুরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় কোম্পানী কমান্ডার পযায়ে দু’দেশের সীমান্ত রক্ষীদের মধ্যে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পতাকা বৈঠকে সীমান্ত এলাকার আগত উৎসুক জনতাকে সীমানা পিলার এড়িয়ে সীমান্তের উপারে না যাওয়ার জন্য কড়া নির্দেশ প্রদান করা হয়। বিশেষ করে বোরো চাষীদের রাতে সীমান্তের শুন্য লাইনের জমিতে পানি নিতে আসতে বারণ করেছেন। সীমান্তের শুন্য লাইনের জমির মালিক ও বোরো চাষীদের দিনের বেলায় জমিতে পানি নিতে আসতে আহবান করেন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.