বাগদানের আংটি হাতেই সড়কে প্রাণ গেল ফোজিয়ার!

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ নোয়াখালীর সদর উপজেলার সোনাপুর-নোবিপ্রবি সড়কে পিকআপ চাপায় নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের অষ্টম ব্যাচের ছাত্রী ফৌজিয়া মোসলেম নিহত হয়েছেন।

গত মাসে ফৌজিয়ার আংটি বদল হয়েছে এই বিশ্ববিদ্যালয়েরই ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষক মনির হোসেনের সাথে। ডিসেম্বরে অষ্টম সেমিস্টার (ফাইনাল) পরীক্ষা শেষে বিয়ে হওয়ার কথা ছিল তাদের।

রোববার ১৯ নভেম্বর দুপুর দেড়টায় সোনাপুর- নোবিপ্রবি সড়কের রয়্যাল হাসপাতালের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত ফৌজিয়া নোয়াখালী পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড শাহপুর গ্রামের বাইশ বাড়ির মো. মুসলিম উদ্দিনের একমাত্র মেয়ে।

স্থানীয়রা বলছে, দুপুরে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশাযোগে বাড়ি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে যাচ্ছিলেন ফৌজিয়া।রয়্যাল হসপিটাল পেরিয়ে কিছুদূর যেতেই ফৌজিয়াকে বহন করা অটোরিকশাটিকে সামনে থেকে চাপা দেয় সুবর্ণচর থেকে ছেড়ে আসা একটি পিকআপ ভ্যান । এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। অটোরিকশায় থাকা ফৌজিয়াসহ কয়েকজন আহত হন।

পরে স্থানীয়রা আহতদের প্রথমে স্থানীয় রয়্যাল হাসপাতাল ও পরে ফৌজিয়ার অবস্থার অবনতি হলে তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করলে কর্তব্যরত চিকিৎসকতাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সূত্র জানায়, গত মাসে নোবিপ্রবির ফার্মেসি বিভাগের শিক্ষক মনির হোসেনের সাথে ফৌজিয়ার আংটি বদল হয় এবং পরীক্ষা শেষে তাদের বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

সুধারাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন জানান, পিকআপ ভ্যানটি আটকের চেষ্টা চলছে।

Comments are closed.