বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে ব্যবসা-বাণিজ্য বাড়ানোর সুযোগ রয়েছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে পারস্পরিক ব্যবসা-বাণিজ্য এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক সম্প্রসারণের বড় সুযোগ রয়েছে। এই সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে দুইদেশই উপকৃত হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড স্ট্রাটেজিক স্টাজিড (বিআইআইএসএস) আয়োজিত সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।
‘বাংলাদেশ-সাইথ আফ্রিকা বাইল্যাটারাল রিলেশন: এক্সপ্লোরিং দ্য পোটেনশিয়াল ফর ফিউচার এনগেজমেন্ট অ্যান্ড কো-অপারেশন’ শিরোনামের এ সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন সফররত দক্ষিণ আফ্রিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. গ্রেস নালেদি প্যানডর এমপি।

বিআইআইএসএস-এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল এমদাদ-উল-বারী অনুষ্ঠানে স্বাগত ও সমাপনী বক্তব্য দেন। আলোচনায় অংশ নেন বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ঢাকায় অবস্থিত বিভিন্ন কূটনৈতিক মিশনের প্রতিনিধি, ঊর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, গবেষক ও বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার প্রতিনিধি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ‘বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে পারস্পরিক ব্যবসা-বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। দুইদেশের সম্পর্ক মজবুত করতে অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ও কর্মসংস্থান গড়ার অনুমতি রয়েছে। তৈরি পোশাক, ওষুধ, মৎস্য ও পর্যটনখাতে বিনিয়োগ করারও রয়েছে অফুরন্ত সুযোগ।’

দক্ষিণ আফ্রিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যে আলোচনা সাপেক্ষে কিছু গুরুত্বপূর্ণ চুক্তি সই হয়েছে এবং কারিগরি খাতে উভয় দেশের ভালো করার সম্ভাবনা রয়েছে।’

ইন্ডিয়ার ওশান রিম অ্যাসোসিয়েসনের (আইওআরএ) গুরুত্ব তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘১৯৯৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রয়াত রাষ্ট্রপতি নেনসন ম্যান্ডেলা ভারত ভ্রমণ করার সময় এ সংস্থা গঠনের বিষয়ে প্রথম ধারণা দিয়েছিলেন।’

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.