বলিউডের আলোচিত ঠাণ্ডা লড়াই

ওয়ান নিউজ বিনোদন ডেক্সঃ সিনেমার মতই বাস্তবজীবনে প্রতিযোগিতা, প্রতিদ্বন্দ্বিতা বা দ্বৈরথ আছে বলিউডের বেশ কয়েকজন সেলিব্রিটির মাঝে। তাদের কারো কারো এককালে মধুর সম্পর্ক ছিল, কিন্তু বর্তমানে তেতো অবস্থা চলছে। এ তালিকায় সম্প্রতি যুক্ত হয়েছে করণ জোহর ও কাজলের নাম। দীর্ঘসময় ধরে বলিউডে চলা তেমন কিছু ঠাণ্ডা লড়াইয়ের কিছু গল্প জেনে নিন।

রাম গোপাল ভার্মা-করণ জোহর :

করণ জোহরের ‘কাভি আলবিদা না কেহনা’ দেখে রাম গোপাল ভার্মা বলেছিলেন, তার দেখা সবচেয়ে ভয়ঙ্কর ছবি! ওদিকে ভার্মার ‘ফোঙ্ক’ দেখে করণ বলেছিলেন, ‘ফোঙ্ক ৩’ আর বানানো হবে না। এভাবেই শুরু হয় বলিউডের দুই মেধাবী পরিচালকের মধ্যে স্নায়ুযুদ্ধ।

অর্জুন কাপুর-রণবীর সিং : তাদের মধ্যে লড়াই শুরু হয় ‘গুন্ডে’ ছবিতে অভিনয়ের সময়। প্রথমদিকে মনে হয়েছিল তাদের মধ্যে বেশ গলায় গলায় ভাব। এমনকি ‘কফি উইথ করণ’-এ নিজেদেরকে ভালো বন্ধু হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু ক্যামেরা বন্ধ হওয়ার সাথে সাথে দুজনের মধ্যে কথা চালাচালি বন্ধ হয়ে যায়। তাদের বিরোধের কারণ হলেন আনুশকা শর্মা। এ নায়িকার সঙ্গে ভালোই ভাব ছিল রণবীরের, তাকে পাশ কাটিয়ে কাছে যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন অর্জুন। আবার ‘লুটেরা’তে অভিনয়ের সময় সোনাক্ষী সিনহার প্রেম পড়েন রণবীর, যিনি কিনা অর্জুনের সাবেক প্রেমিকা!

প্রিয়াঙ্কা চোপড়া-দীপিকা পাড়ুকোন : তাদের দ্বৈরথ বলিউড ছেড়ে একেবারে হলিউড পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। ‘বাজিরাও মাস্তানি’র এই দুই অভিনেত্রী সিনেমার মতো বাস্তবেও তীব্র বিবাদে যুক্ত হন। সুযোগ পেলেই একে অন্যের বিপরীতে একহাত দেখে নেন। ধারণা করা হচ্ছিল, ভিন ডিজেলের বিপরীতে ‘ট্রিপল এক্স’ দিয়ে ‘বেওয়াচ’-এর প্রিয়াংকা থেকে এগিয়ে আছেন দীপিকা। কিন্তু বক্স অফিসে ‘ট্রিপল এক্স’ একদমই ভালো করেনি, মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘বেওয়াচ’।

রাণী মুখার্জী-প্রীতি জিনতা : ‘বীরজারা’য় খুব বন্ধুত্বপূর্ণ অভিনয়ে দেখা গেলেও ক্যারিয়ারের সেরা সময়ে ঠাণ্ডা লড়াই ছিল দুজনের মধ্যে। এই দুই সুন্দরীকে নিয়ে বলিউড ভক্ত-দর্শকদের মধ্যেও ভাগাভাগি হতো! দুই নায়িকা অনেকদিন ধরে ফিল্ম থেকে দূরে আছে। ফিরে আসার আলোচনা উঠতেই আবার দুজনের মধ্যে তুলনা শুরু হয়।

অভিষেক বচ্চন-হৃতিক রোশন : তাদের মধ্যে দ্বৈরথ শুরু হয় বলিউডে অভিষেকের পর থেকেই। দুজনই একই বছর বলিউডে এসেছিলেন এবং প্রথম ছবি দিয়ে ‘সেরা নবাগত’ পুরস্কারটি ভাগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। ‘ধুম টু’তে একসাথে অভিনয় করার সুবাধে দুজনের কাছাকাছি আসার সুযোগ হয়। তা শুধুই পুরনো দ্বৈরথ জাগিয়ে তোলে। ‘ধুম টু’র মতো বাস্তবেও তাদের মধ্যে স্নায়ুযুদ্ধ রয়েছে। আর হৃতিকের সাথে ঐশ্বরিয়া রাইয়ের সফল রসায়ন তার স্বামীকে ঈর্ষান্বিত করার জন্য যথেষ্ট! যদিও অভিষেক এটা স্বীকার করেননি কিন্তু তাদের মধ্যে যে দহরম মহরম সম্পর্ক রয়েছে তার কোন প্রমাণও পাওয়া যায়নি।

সূত্র : মেনস্ ওয়ার্ল্ড

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.