ঠোঁটের যত্নে

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ

রূপচর্চা

সব মেয়েরাই চায় তাদের ঠোঁট রাঙিয়ে তুলতে। ঠোট একটি আকর্ষণীয় অঙ্গ। ছেলে মেয়ে উভয়ের ক্ষেত্রে এটির যত্ন বেশ লক্ষ করা যায়। তবে ত্বকের যত্নের দিক থেকে মেয়েরা একটু এগিয়ে। একজন ব্যক্তি ফর্সা কিন্তু তার ঠোট যদি কালো হয় তবে দেখতে কিন্তু খুবই খারাপ লাগে।

এদিকে দেখতে দেখতে প্রায় চলেই এলো শীত। এ সময় ঠোঁটের চাই একটু বাড়তি যত্ন। ঠোঁট মানুষের মুখের এক অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অংশ। অনেকের ঠোঁট বংশগত কারণেই কালচে হয়ে থাকে। তবে সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি, ধূমপান, অতিরিক্ত ক্যাফেইন গ্রহণ ইত্যাদি কারণেও অনেক সময় ঠোঁটের রং কালচে হয়ে যায়। তাছাড়া নিয়ম করে যত্ন না নিলেও ঠোঁট কালো হয়ে যেতে পারে।

তবে ঠোঁটের কালচেভাব দূর করে, ঠোঁট গোলাপি রাখারও কিছু সহজ উপায় আছে। তাহলে জেনে নিন ঠোঁট গোলাপি রাখার সহজ কিছু উপায় সম্পর্কে।

• ঘুমানোর আগে ঠোঁটে পালং পাতা ঘষে নিন। সাথে রাখতে পারেন জাফরানও। এই দুটি সহজলভ্য উপাদানের নিয়মিত ব্যবহার আপনার শুষ্ক ঠোঁটকে সারিয়ে তুলবে এক নিমিষেই।

• একটি পাতলা লেবুর টুকরোর ওপরে খানিকটা চিনি ছিটিয়ে প্রতিদিন ঠোঁটে ঘষুন। চিনি ঠোঁটের মরা চামড়াগুলোকে পরিষ্কার করতে এবং লেবু সূর্যের রশ্মিতে কালো হয়ে যাওয়া ঠোঁটের চামড়াকে উজ্জ্বল করতে সাহায্য করে।

• মধুর সঙ্গে চিনি এবং কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল মিশিয়ে ১০ মিনিট ঠোঁটে ঘষুন।

• ঠোঁটকে উজ্জ্বল করতে ল্যাক্টিক অ্যাসিড খুব উপকারী। নিয়মিত দুধ খাবার সাথে সাথে খানিকটা দুধ তুলোয় করে ঠোঁটে ঘষে নিন। শুষ্ক চামড়াকে তুলে ফেলার মাধ্যমে দুধ ঠোঁটের কালো হওয়াকেও প্রতিরোধ করে।

• গোলাপের পাপড়িও ঠোঁটের গোলাপি ভাব আনতে সাহায্য করে। এজন্য গোলাপের পাপড়ি দুধের মধ্যে রেখে তাতে মধু ও গ্লিসারিন মিশিয়ে নিন। প্রলেপটি ১৫ মিনিট ঠোঁটে মাখুন। এরপর দুধ দিয়ে ঠোঁটকে মুছে নিন। প্রতিদিন এই প্রলেপটির ব্যবহার আপনার ঠোঁটকে করে তুলবে আকর্ষণীয়।

• লেবুর ভেতরের এসিড ঠোঁটের শুষ্ক চামড়াকে তুলে ফেলতে সাহায্য করে। তবে লেবুর রসের সাথে খানিকটা চিনি ও মধু মিশিয়ে ঘরে বসেই নিতে পারেন ঠোঁটের পুরোপুরি যত্ন। প্রলেপটি মাখার একঘণ্টা পর ধুয়ে নিন।

• লেবুর রসের সাথে খানিকটা গ্লিসারিন মিশিয়ে ঠোঁটে মাখুন। কয়েকদিনেই আপনি পাবেন চমৎকার ফলাফল।

• বাদামের তেল, মধু ও চিনির মিশ্রণ করুন। প্যাকটি আপনার ঠোঁটকে কেবল সুন্দরই করবে না কোমলতাও বাড়াবে।

• কমলালেবু খাবার সময় এর বীচিগুলোকে সংরক্ষণ করুন এবং নিয়মিত ঠোঁটকে এগুলোর দ্বারা পরিষ্কার করুন।

• প্রতিদিন টমেটো পেষ্ট করে ঠোঁটে মাখুন। আপনার ঠোঁট হবে উজ্জ্বল।

• শসার রসও ঠোঁটের কালো হওয়াকে প্রতিরোধ করে। ফলাফল পেতে প্রতিদিন অন্তত ৫ মিনিট শসার রস ঠোঁটে ঘষুন।

Comments are closed.