জুয়া খেলায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি:

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে স্বামীকে জুয়া খেলায় বাধা দেওয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে এবং শ্বাসরোধ করে হত্যার পর লাশ আমগাছে ঝুলিয়ে রাখার অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সন্ধায় উপজেলার নরিনা ইউনিয়নে বাতিয়া পূর্বপাড়া গ্রাম থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় নিহতের স্বামী মোঃ মোস্তফা পলাতক রয়েছে।

নিহত আয়শা খাতুন (৩০) উপজেলার কায়েমপুর ইউনিয়নের চুলধরী গ্রামের মোস্তফার স্ত্রী।

নিহত আয়শা খাতুনের বড় চাচা আফসার আলী অভিযোগ করে জানান, প্রায় ১০ বছর নরিনা ইউনিয়নের বাতিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের শাহজাহানের ছেলে মোস্তফার সঙ্গে বিয়ে হয় আয়শার। বিয়ের পর সংসারে কোনো ঝামেলা ছিল না। তবে সম্প্রতি মোস্তফা অন-লাইনে জুয়া খেলায় আসক্ত হন। এর জেরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ দেখা দেয়। জুয়া খেলায় বাধা দেন আয়শা। এতে মোস্তফা ক্ষুদ্ধ হন। এর জন্য রবিবার রাতে আয়শাকে মারধর করে শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশ বাড়ির পেছনে একটি আমগাছে ঝুলিয়ে রাখেন মোস্তফা।

শাহজাদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিদ মাহমুদ খান জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার ময়নাতদন্তের জন্য লাশ সিরাজগঞ্জ শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হবে।

তিনি আরও জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে আয়সাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এঘটনায় নিহতের বড় চাচা আফসার আলী বাদি হয়ে মামা দায়ের করেছে।

Comments are closed.