চীনের ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’, উদ্বিগ্ন ভারত, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ প্রায় ৬৮ দেশ এবং ৪৪০ কোটি মানুষকে নিয়ে চীনের ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ পরিকল্পনা মূলত প্রাচীন বাণিজ্যিক রুট নিয়ে। বলা হচ্ছে এতে হাজার হাজার মানুষের দারিদ্র্য কাটবে। কেউ অবশ্য নিশ্চিত নয় এই পরিকল্পনায় আসলেই কি কি বিষয় অন্তর্ভূক্ত আছে। তবে অনেকেই একে চীনা সাম্রাজ্যবাদ বিকাশের নতুন উপায় বলে উল্লেখ করছেন।

প্রাচীনকালে সিল্ক রুট নামে পরিচিত বাণিজ্যিক পথকে চীন ফের নতুন করে সাজিয়ে তুলতে চায়। মূলত: ইউরেশিয়ার সঙ্গে পণ্য চালান সহজ করার জন্যই চীনের এ উদ্যোগ। বাণিজ্যে বিশ্বে অন্যতম বৃহৎ দেশ চীনের জন্য এই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা খুবই সাধারণ একটি ঘটনা। কিন্তু ওয়াশিংটন, মস্কো এবং নয়া দিল্লি একে বেইজিংয়ের প্রভাব বাড়ানোর পরিকল্পনা বলে মনে করছে। যা তারা মোটেও ভালো চোখে দেখছে না।

অন্যান্য দেশ মনে করছে চীন আসলে মানবাধিবার লঙ্ঘন করবে, পরিবেশের ক্ষতি করবে এবং দরিদ্রদের ঋণে জর্জরিত করে তাদের আর্থিক অবস্থা আরো খারাপের দিকে নিয়ে যাবে।

চীনের রাষ্ট্রশাসিত কোম্পানি পাকিস্তান শাসিত কাশ্মিরে তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এতে ভারত মোটেও খুশি না। চীনের নতুন এ পরিকল্পনায় পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রণ ভারতকে আরো উদ্বিগ্ন করে তুলছে।

এই মাসের এডিবির এক অধিবেশনে ভারতের অর্থ ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রী অরুণ জেটলি চীনের পরিকল্পনা নিয়ে বলেন, আমাদের এ বিষয়ে কিছু সন্দেহ রয়েছে, কারণ এখানে সার্বভৌমত্ব রক্ষার প্রশ্নও রয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার হিন্দুস্তান টাইমসের সূত্র অনুযায়ী, মার্কিন সিনেটে বৈশ্বিক হুমকি নিয়ে এক শুনানিতে উল্লেখ করা হয় চীনের ‘ওয়ান বেল্ট, ওয়ান রোড’ পরিকল্পনা সারা বিশ্বের জন্য এক ধরণের আগ্রাসী বিনিয়োগ এবং কার্যক্রম। মার্কিন গোয়েন্দা বিভাগের পরিচালক ড্যান কোটস বলেন, তারা (চীন) বিনিয়োগের মাধ্যমে কোনও কৌশল নির্ধারণ করেছে। আপনি বিশ্বের যে কোনও অঞ্চলের নাম বলবেন সেখানেই চীনাদের উপস্থিতি দেখতে পাবেন, তারা বিনিয়োগের জন্য কোনও কোনও পথ খুঁজছে।

মস্কোও বেইজিংয়ের এই পদক্ষেপ নিয়ে চিন্তিত। কারণ চীন মধ্য এশিয়াকে আনছে উজবেকিস্তান ও অন্যান্য দেশকে এ পরিকল্পনায় যুক্ত করার মাধ্যমে। গত বছরের জুনে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ‘গ্রেট ইউরেশিয়া প্রোজেক্ট’ নামে একটি পরিকল্পনা পেশ করেন। এই পরিকল্পনায় চীনকে তিনি অন্তর্ভূক্ত করেছেন। কিন্তু পশ্চিমা মূল দেশগুলোকে তিনি এই পরিকল্পনার আওতামুক্ত রেখেছেন।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.