চকরিয়ায় মায়ের সামনে টমটমের ধাক্কায় মেয়ের মৃত্যু

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি :
কক্সবাজারের চকরিয়ায় মায়ের সঙ্গে বেড়ানো শেষে নানা বাড়ি থেকে ঘরে ফেরার পথে টমটমের ধাক্কায় নাবিলা (৬) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চকরিয়া-মহেশখালী সড়কে বদরখালী ইউনিয়নের জোবাইর মিয়ার ঘাটা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত শিশু নাবিলা ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের আবদুল হামিদ মানিকের মেয়ে।
নিহতের পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী লোকজন জানায়, বৃহস্পতিবার দুপুরে নানার বাড়ি থেকে ফেরার পথে টমটমের জন্য অপেক্ষা করছিলেন শিশু নাবিলা ও তা মা। এসময় একটি বেপরোয়া টমটম সড়কের পাশে দাঁড়ানো নাবিলাকে ধাক্কা দিয়ে দ্রæত পালিয়ে যায়। পরে আহত নাবিলাকে উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে মারা যায়।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ওসমান গনি টমটমের ধাক্কায় শিশু নিহতের ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। ##

চকরিয়ায় খুটাখালীতে টমটম গ্যারেজের ব্যাটারী লুটের ঘটনায় অভিযুক্ত ৩ আসামি জেলহাজতে

চকরিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি :
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী গ্রামীণ ব্যাংক রাস্তা নামক এলাকায় টমটম গ্যারেজের ১৩ টি গাড়ির ৫৬ টি ব্যাটারী লুটের ঘটনায় অভিযুক্ত তিন জনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারী) দুপুরে চকরিয়া উপজেলা সিনিয়র ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক এই নির্দেশ দেন।
জেলহাজতে পাঠানো অভিযুক্তরা হলেন উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ড ফরেষ্ট অফিসপাড়া গ্রামের আবদু ছালামের ছেলে মোঃ আবদুল্লাহ (২৫), একই গ্রামের মোঃ হোছন প্রকাশ কালা বদার ছেলে নজরুল ইসলাম (২২) ও তার ভগ্নিপতি নুরুল ইসলাম (৪৯)।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার খুটাখালী ইউনিয়নের ছড়িবিল গ্রামের মৃত আবদুল কাদেরের ছেলে মোঃ গিয়াস উদ্দীন বিগত ১ বছর ধরে মহাসড়কের লাগোয়া গ্রামীন ব্যাংক রাস্তা নামক এলাকায় টমটম গাড়ির গ্যারেজে বৈধভাবে চার্জ দিয়ে ব্যবসা করে আসছিল। ঘটনার দিন (৫ জানুয়ারী) রাতে তিনি ৩০টি গাড়ি চার্জে লাগিয়ে ঘুমিয়ে পড়ে। এ সুযোগে অভিযুক্তদের যোগসাজশে সংঘবদ্ধ চুরের দল সিদ কেটে ভিতরে প্রবেশ করে তাঁর হাত,পা, মুখ ও চোখ বেঁধে ১৩ টি গাড়ির ৫৬ টি ব্যাটারী লুট করে প্রায় সাড়ে ৫ লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করে।
এ ঘটনায় টমটম গ্যারেজের মালিক গিয়াস উদ্দীন বাদি হয়ে গত ১০ জানুয়ারী চিহ্নিত ৩ জনকে আসামী করে চকরিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় বৃহষ্পতিবার তাঁরা জামিন নিতে গেলে আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
টমটম গ্যারেজের মালিক গিয়াস উদ্দীন বলেন, গ্রামীন ব্যাংক রাস্তা নামক এলাকায় লাখ টাকা ব্যয়ে একটি টমটম গাড়ির চার্জের গ্যারেজ স্থাপন করি। এতে চুরের দল হানা দিয়ে আমার সাড়ে ৫ লাখ টাকার ক্ষতি সাধন করে। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করলে আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠিয়েছেন। আশা করি হারানো মালামাল উদ্ধার ও দোষিদের উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।##

 

মন্তব্য করুন

আমরা সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্র রিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোন মন্তব্য বা বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোন ধরনের আপত্তিকর মন্তব্য বা বক্তব্য সংশোধনের ক্ষমতা রাখেন।

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.