খুলনার সাংবাদিক ইশরাত ইভার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করা হোক

বিশেষ প্রতিবেদকঃ

সময়ের সাহসী অনলাইন পোর্টাল “খুলনার কন্ঠ”য়ের সম্পাদক শেখ রানা ও প্রকাশক সাংবাদিক ইশরাত ইভার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের ও হয়রানির অভিযোগ উঠেছে।

এরই মধ্যে বিভিন্ন সংগঠন এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিও জানিয়ে আসছে।

তবে একটি বিশেষ মহল,উদ্দেশ্য প্রনোদিত হয়ে মিথ্যা ভুয়া বানোয়াট মামলা দায়ের করেছে। যার এজহারের সাথে ইশরাত ইভা ও প্রকাশক জড়িত বলে কোন প্রমাণ নেই।

সুত্রে জানা যায়, গত বছরের ৫, ৭ ও ২৪ জানুয়ারী ভূমিদস্যু নিয়ে “খুলনার কন্ঠ” অনলাইন পোর্টালে তিন পর্বের সংবাদ প্রকাশ করার জের ধরেই তকদির হোসেন বাবু তার সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ খালিশপুর থানায় অন্য একজনের আইডি দিয়ে মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মিথ্যা মামলা রুজু করে।

এজহার মর্মে আরো জানা যায়, মামলায় ফেসবুক আইডি বা মোবাইল ফোনে তার কাছে অর্থ চাওয়া হয়েছে যার সবকিছুই মিথ্যা ও সাজানো।

এসব কোন কিছুর সাথেই খুলনার কন্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশকের কোন প্রকার সম্পৃক্ততা নেই।

গনমাধ্যমের অবাধ পথ স্বাধীন ও স্বতন্ত্র করতে, দেশে গণতন্ত্রের বাস্তবায়নে বাক স্বাধীনতা এবং ন্যায় বিচারের স্বার্থে মামলাটা পুনরায় ডিবি পুলিশ বা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেষ্টিগেশন বিভাগ কতৃক পুনঃতদন্ত পুর্বক সঠিক তথ্য প্রমাণ বের করে মামলা হতে অব্যাহতি দেওয়ার আবেদন করেছে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীরা।

অন্যতায় “খুলনার কন্ঠে”র সম্পাদক ও প্রকাশকের নামে দায়েরকৃত তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মিথ্যা মামলাটি তুলে নেওয়া না হলে সাংবাদিক নেতারা লাগাতার আন্দোলনে যাবার ঘোষনা দেন।

Comments are closed.