করোনাভাইরাসে ১৭৩ জনের মৃত্যু

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৮ হাজার ৪৯৮ জনে।

এ সময় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৭ হাজার ৬১৪ জন। এতে মোট শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১১ লাখ ৩৬ হাজার ৫০৩ জনে।

আজ বুধবার বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ২৪ হাজার ৯৭৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। পরীক্ষার বিপরীতে রোগী শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৪৮ শতাংশ।

গতকাল মঙ্গলবার দেশে করোনার সংক্রমণে ২০০ জনের মৃত্যু কথা জানিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। রোগী শনাক্ত হয়েছিল ১১ হাজার ৫৭৯ জন। আগের দিন সোমবার করোনাভাইরাসের সংক্রমণে ২৩১ জনের মৃত্যু খবর জানানো হয়—যা দেশে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

সব মিলিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ১৮ হাজার ৪৯৮ জনের। করোনা সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১১ লাখ ৩৬ হাজার ৫০৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৯ লাখ ৬১ হাজার ৪৪ জন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৯ হাজার ৭০৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি ৫৮ জনের মৃত্যু হয়েছে ঢাকা বিভাগে। খুলনা বিভাগে মৃত্যু হয়েছে ৩৮ জনের। চট্টগ্রাম বিভাগে মারা গেছেন ৩২ জন। বাকিরা অন্যান্য বিভাগের। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মারা যাওয়া ১৭৫ জনের মধ্যে ৯৮ জন পুরুষ, নারী ৭৫ জন।

দেশে করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে চলতি মাসের প্রথম দুই সপ্তাহ সর্বাত্মক বিধিনিষেধ পালন করা হয়। এ সময় সব ধরনের অফিসের পাশাপাশি গণপরিবহন চলাচলও বন্ধ রাখা হয়। ঈদুল আজহা উপলক্ষে এই বিধিনিষেধ আট দিনের জন্য শিথিল করা হয়েছে। মার্কেট, শপিং মল ও দোকানপাট খুলেছে। চলছে গণপরিবহনও। তবে আগামী শুক্রবার সকাল থেকে আবার কঠোর বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। দুই সপ্তাহ ধরে এই লকডাউন চলবে।

চীনের উহানে ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ দেখা দেয়। কয়েক মাসের মধ্যে এই ভাইরাস বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশে প্রথম করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয় গত বছরের ৮ মার্চ। এরপর বিভিন্ন সময়ে সংক্রমণ কমবেশি হলেও মাসখানেকের বেশি সময় ধরে দেশে করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক অবস্থায় পৌঁছেছে। দেশে করোনার ডেলটা ধরনের দাপটে দৈনিক সংক্রমণ এবং করোনায় মৃত্যু কয়েক গুণ বেড়েছে।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.