কক্সবাজার রামুতে বৃদ্ধি পাচ্ছে শিশু কিশোর অপরাধীর সংখ্যা

 

 

মাসেদুল হক আরমান রামু,

কক্সবাজার রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা রশিদ নগর ঈদগড়সহ পুরো উপজেলার ক্রমশ  বৃদ্ধি পাচ্ছে শিশু -কিশোর অপরাধীর সংখ্যা। অপরাধ জগতের রাঘব বোয়ালরা কোমলমতি শিশু – কিশোরদের অপরাধ কর্মে জড়াচ্ছে বলে সূত্র প্রকাশ। আজকের শিশুরা আগামী দিনের দেশ ও জাতির ভবিষ্যৎ কর্ণধার এ কথাটি আজ সমাজের বিভিন্ন সভা সেমিনারে দীপ্ত কন্ঠে উচ্চারিত হলেও তাদের অপরাধ কর্মকান্ড থেকে ফিরিয়ে এনে সুস্হ জীবনের নিশ্চয়তা দেয়ার  মতো এখনো চোখে পড়ছেনা। সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের পাশাপাশি শিশু কিশোরদের নিরাপদ বাহক হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে মাদকদ্রব্য  আনা নেওয়ার ক্ষেত্রে এসব শিশু কিশোরদের নেতৃত্বে দিচ্ছে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত রামুর একাধিক শক্তিশালী সিন্ডিকেট। উক্ত সিন্ডিকেট প্রশাসনের নজর ফাঁকি দিয়ে মাদকদ্রব্য একস্হান থেকে অন্য স্হান নিয়ে  যাওয়া এবং বিকি কিনিতে প্রতিনিয়ত ব্যবহার করা হচ্ছে শিশু- কিশোরদের। অন্যদিকে অনেক ক্ষেত্রে। লেখাপড়া না করে অনেক দরিদ্র পরিবারের শিশু কিশোররা নিমিশেই জড়িয়ে পড়ছে। সর্বনাশা এ কর্মকান্ডে। বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায় ১০ থেকে ১৫ বছরের অস্বচ্ছল পরিবারের ছিন্নমূল শিশু কিশোররা বিভিন্ন মাদকদ্রব্য অভিনব পস্হায় বহন করে থাকে। আর এসব সমাজ বিরোধী কার্যকালাপের সাথে সম্পৃক্ত হওয়ার পর পর কৌতুহল বসত সেবন করে লেগেছে মাদকদ্রব্য। আর নেশার টাকা যোগাড় করতে কোমলমতি শিশু- কিশোররা জড়িয়ে পড়ছে নানা অপরাধ কর্মকান্ডে।সূত্র প্রকাশ ঈদগড়সহ উপজেলার ছিন্নমুল শিশু – কিশোররা বিশেষ করে  টোকাইদের নিয়ে একটি সংঘবদ্ধ দল জোয়ারিয়ানালা রশিদ নগর ঈদগড়সহ পুরো উপজেলার বিভিন্ন বসত বাড়ী, দোকান পাঠ সহ বিভিন্ন স্হানে চুরি ডাকাতিসহ নানা ধরনের অপরাধ কর্মকান্ড বাস্তবায়ন  করে যাচ্ছে। এসব ক্ষুদে অপরাধীরা বাসাবাড়ি থেকে কাপড় চোপড় মোবাইল সেট, টাকা পয়সা বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্র কখনো পার্কিং এ রাখা গাড়ি থেকে মূল্যবান যন্ত্রাংশ, আবার কখনো দোকান পাট থেকে চুরি ও ডাকাতি করে সব কিছু তুলে দিচ্ছে সিন্ডিকেটের গড়ফাদারের হাতে। এমন কয়েকটি সিন্ডিকেট  পুরো রামু উপজেলায় সক্রিয় অভিযোগ রয়েছে। সচেতন মহলের অভিমত অপরাধ মূলক এসব কর্মকান্ডের সাথে জড়িত হওয়ার পেছনে রয়েছে বিভিন্ন প্রলোভন, অভিবাকদের অসচেতনা জীবিকা নির্বাহের প্রয়োজনীয়তা, নেশাগ্রস্ততা সর্বপরি প্রশাসনের নজর দারীর অভাব। সমাজিক অবক্ষয়রোধের কারণে এসব শিশু –  কিশোররা অপরাধমূলক কর্মাকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে বলে অভিয়্গ মহলের অভিমত। এসবের বিরুদ্দে প্রয়েজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লীষ্ট কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন সচেতন মহল।

Comments are closed.