কক্সবাজারে ফিশিং বোট ডুবিয়ে দিয়ে মালামাল লুট

নিজস্ব প্রতিবেদক, কক্সবাজার
কক্সবাজার সদরের চৌফলদন্ডির ঘাট থেকে মাছ ধরার ট্রলার ডুবিয়ে দিয়ে ইঞ্জিন, জাল, জ্বালানি তেল, পানির ড্রামসহ মূল্যবান সরঞ্জাম লুট করেছে চিহ্নিত দস্যুরা। এতে বোট মালিকের অন্তত ১৭ লক্ষ টাকা ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে।

বুধবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে।

এ ঘটনায় বোট মালিক শামসুল আলম বাদি হয়ে বুধবার (২৮ জুলাই) কক্সবাজার সদর মডেল থানার ৫ জনের বিরুদ্ধে এজাহার দিয়েছেন।

অভিযোগের সুত্র ধরে ওই দিনই থানার এসআই বিভাষ চন্দ্র ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি ঘটনার সত্যতাও পেয়েছেন বলে জানা গেছে।

বোট মালিকের অভিযোগ, খুরুশকুলের কাউয়ারপাড়ার এলাকার এখলাছুর রহমানের নেতৃত্ব ফিশিং বোটটি লুট হয়েছে। মামলা করলে জানে মেরে ফেলবে বলে মুঠোফোনে হুমকি দিচ্ছে চিহ্নিত অপরাধীচক্র।

লুটের সাথে যারা জড়িত সবার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানিয়েছেন তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে তদন্ত কর্মকর্তা বিভাষ চন্দ্র বলেন, অভিযোগের পর ঘটনাস্থলে গিয়েছি। স্থানীয়দের সাথে কথা বলেছি। তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দীর্ঘ ৬৫ দিন সাগরে মাছ ধরা নিষিদ্ধ ছিল। এসময় বোট মালিক ও জেলেদের দুর্দিন গেছে। নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর মাছ ধরতে যাওয়ার মৌসুমে লুটের ঘটনায় অপূরণীয় ক্ষতির শিকার হয়েছেন বোট মালিক।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.