উখিয়ায় নারী নেত্রীকে কুপিয়ে হত্যা মামলার ২ আসামি গ্রেফতার

ইমাম খাইর, কক্সবাজার
উখিয়ায় নারী নেত্রী লুলু আল মারজান (৩৮)কে কুপিয়ে হত্যা মামলার ২ আসামি গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
তারা হলেন, ঘাতক মো. ইউছুপের পিতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম (৬০) ও ভাই মো. সেলিম (২১)।
রবিবার (৭ মে) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন উখিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী।
তিনি জানান, লুলু আল মারজান হত্যা মামলার দুই আসামিকে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া এলাকায় শনিবার রাতে প্রায় ৭ ঘণ্টার অভিযানে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে মূল হোতা মো. ইইছুপ আত্মগোপনে। তাকে ধরার চেষ্টা চলছে।
উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার (৪ মে) রাত ৮টার দিকে উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের পশ্চিম পালংখালী এলাকার নিজ বাড়িতে লুলু আল মারজানকে জবাই করে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় থানায় মামলা করেছেন নিহতের মেজ মেয়ে। মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ৪ জন। অজ্ঞাতনামা রয়েছে আরো ৪ জন।

নিহত লুলু মারজান উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়া গ্রামের মৃত মমতাজ মিয়ার স্ত্রী ও পালংখালী উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির নারী সদস্য।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ইউছুপ একজন মাদক ব্যবসায়ী। এর আগে র‌্যাব তাকে গ্রেফতার করে। কারামুক্ত হয়ে হত্যাকাণ্ডটি ঘটায়।

নিহত লুলু আল মারজানের পিতা আলমগীর মেম্বারকে ২৫ বছর আগে হত্যা করা হয়। ওই মামলার প্রধান আসামি ছিলেন ঘাতক মো. ইউছুপের পিতা মোঃ জাহাঙ্গীর আলম।
নিহত মারজান এমএসএফ হাসপাতালে মিডওয়াইফ হিসেবে কর্মরত ছিলেন।
পারিবারিক বিরোধের জের ধরে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে বলে স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছে।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.