আসল লড়াইয়ে বদলে যাবে বাংলাদেশ!

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ ‘আল্লাহ যা করেন, ভালোর জন্যই করেন।’ আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি শুরুর আগে দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে হার নিয়ে এভাবেই নিজের কথা শুরু করতে চাইলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। দুঃস্বপ্নের হারের পর আসলে সংবাদ সম্মেলনে থাকতে চাইলেন যতটা সম্ভব ইতিবাচক। মঙ্গলবার কেনিংটন ওভালে আগে ব্যাট করে ভারত করেছিল ৭ উইকেটে ৩২৪ রান। জবাবে ২৩.৫ ওভারে ৮৪ রানেই অল আউট টাইগাররা। বৃহস্পতিবার মূল আসর শুরুর আগে ২৪০ রানের এই হার দলের মনোবলটাই কি নাড়িয়ে দিয়ে গেল না? না, যা যাওয়ার প্রস্তুতি ম্যাচের উপর দিয়েই গেছে বলে মানছেন মেহেদী!

এমনকি আসল লড়াইয়ে বদলে যাওয়া বাংলাদেশকেই দেখা যাবে বলে বিশ্বাস তার। মেহেদীর কথারই প্রতিধ্বনি যেন কোচ চন্দিকা হাতুরুসিংহের কণ্ঠে। আসরের উদ্বোধনী দিনেই বৃহস্পতিবার স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি মানে সেরাদের টুর্নামেন্ট। র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা আট দলের লড়াই। বাংলাদেশ নির্দিষ্ট সময়ে র‌্যাঙ্কিংয়ে সেরা আটে জায়গা করে নিয়েই এই টুর্নামেন্টে খেলতে এসেছে। অবশ্য এই টুর্নামেন্ট খেলতে ইংল্যান্ডে পা রাখার আগে র‌্যাঙ্কিংয়ে আরো এগিয়েছে তারা। উঠে এসেছে ছয় নম্বরে। তবে বিশ্বকাপের পর ক্রিকেটের দ্বিতীয় বৃহত্তম আসরে ভালো করতে হলে কঠিন পথই পাড়ি দিতে হবে টাইগারদের।

যেখানে শুরুতে ইংল্যান্ড বাধা ছাড়াও রয়েছে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড পরীক্ষা। কিন্তু এমন শক্তিধরদের বিপক্ষে মিশন শুরুর আগে ভারত ম্যাচ কি আত্মবিশ্বাসে চিড় ধরাবে না টাইগারদের? মঙ্গলবার ম্যাচের পর মেহেদী বলেছেন, ভালো করার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাস আগের মতোই আছে তাদের, ‘আমাদের আত্মবিশ্বাস আছে। আশা করি, আমরা অবশ্যই ঘুরে দাঁড়াবো। ড্রেসিং রুমও একদম ঠিক আছে। দলের সবাই জানে, একটা ম্যাচে এ রকম হতেই পারে। মূল ম্যাচে এমনটা হবে না। আমরা সবাই আত্মবিশ্বাসী।’

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের লজ্জাজনক ব্যাটিংয়ের হতাশা তো আছেই। এর আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে প্রস্তুতি ম্যাচেও অন্য রকম হতাশার সঙ্গি হতে হয় টাইগারদের। আগে ব্যাট করে ৩৪১ রান করেও ম্যাচ জিততে ব্যর্থ। ২৪৯ রানে প্রতিপক্ষের ৮ উইকেট ফেলে দেওয়ার পরও মাঠ ছাড়তে হয়েছে হার নিয়ে। অর্থাৎ প্রস্তুতি ম্যাচ দুটি নিয়ে কাটাছেঁড়া করলে পাওয়ার চেয়ে না পাওয়ার হাহাকারেই পোড়াবে বেশি। তবে টাইগারদের লঙ্কান কোচ হাথুরুর প্রত্যাশা, মূল ম্যাচেই বদলে যাবে টাইগাররা, ‘দুটিই ছিল স্রেফ প্রস্তুতি ম্যাচ। দুটি ম্যাচেই আমরা নানাভাবে অনেক কিছু চেষ্টা করেছি। মূল ম্যাচে আমাদের মনোভাব অন্য রকম হবে!’

Comments are closed.