আবারো যশোর পুলিশের ১০১ দিনের অভিযান ঘোষণা শার্শার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী জয়নাল আয়নাল আটক হবে তো ?

ইয়ানুর রহমান : ১০০ দিনের পর যশোরের পুলিশ নতুন করে মাদক সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে ১০১ দিনের কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এর আগে ১০০ দিনের কর্মসূচি শেষ হলেও শার্শার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীরা আটক হয়নি। নির্মুল করা যায়নি মাদক। ১০০ দিনের কর্মসূচির অভিযানের ফলে বর্তমানে প্রকাশ্যে মাদক বিক্রি না হলেও দেদার্ছে চলছে গোপনে।

আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে এলাকার সচেতন মহলের প্রশ্ন এবার ১০১দিনের কর্মসুচিতে অভিযান চালিয়ে এ সকল শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দেয়া হোক।

আর এ সুযোগকে ব্যবহার করছে শার্শার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী দক্ষিন বুরুজ বাগান গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের সরদারের পুত্র জয়নাল ও আয়নাল, মৃত আব্দুল খালেক ইতালের পুত্র আবুল হোসেন, মৃত দবির উদ্দিনের পুত্র লাল্টু মিন্টু, কন্দর্পপুরের মোড়ল, সম্মন্ধকাঠি গ্রামের আলম সহ কমপক্ষে ২৫ জন। এর বাইরে যারা আছেন তাদের নামে ইতিমধ্যে হুলিয়া জারি করেছেন যশোর জেলা পুলিশের কর্নধার পুলিশ সুপার আনিছুর রহমান।

শার্শার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী দক্ষিন বুরুজ বাগান গ্রামের মৃত আব্দুল কাদের সরদারের পুত্র জয়নাল ও আয়নালের নামে বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হলেও আইন প্রয়োগকারী সংস্থ্যা তাদের টিকিটিও ছুতে পারছে না। তারা আন্ডার গ্রাউন্ডে থেকে দেদার্ছে চালিয়ে যাচ্ছে মাদকের রমরমা কারবার।

তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়, শার্শা ও সারা দেশের কয়েকটি থানায় তাদের বিরুদ্ধে ১ডজনেরও বেশি মামলা রয়েছে। তার মধ্যে শার্শা থানার মামলা নং ১৬। তারিখ ৮/৪/২০১৪। ধারা ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৯ এর খ (ইয়াবা)। শার্শা থানার মামলা নং ১৩। তারিখ ৯/৬/২০১৫। ধারা ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৯ এর খ (ইয়াবা)। ঝিকরগাছা থানার মামলা নং ১২। তারিখ ২০/১১/২০১৩। ধারা ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৯ এর খ (ইয়াবা)। ঝিকরগাছা থানার মামলা নং ২০। তারিখ ২০/০৫/২০১৪। ধারা ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-বি। শার্শা থানা মামলা নং ২৫। তারিখ ১৩/০৬/২০১৫। ধারা ১৪৩/১৪৪/১৮৬/৩০৭/৩৪১/৩৫৩/৪২৭/৪৫৩/৩৪ পেনাল কোর্ট। শার্শা থানা মামলা নং ১৩। তারিখ ০৯/০৬/২০১৫। ধারা ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৯ এর খ (ইয়াবা)। শার্শা থানা মামলা নং ১৮। তারিখ ২০/০২/১৭। ধারা ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ১ এর খ। চট্টগ্রাম কোতয়ালী থানার মামলা নং ৩০। তারিখ ১৫/১০/ ২০১৬। ধারা ১৯৯০ সালের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের ৯ এর খ (ইয়াবা)। সম্প্রতি চট্টগ্রামের এ মামলায় ৬মাস হাজত বাস করে ফিরেছে শার্শার শীর্ষ মাদক ব্যবসায়ী আয়নাল।

এ ব্যবসার সুবাদে এ দুই সহদর ভাই নব্য কোটি পতি বনে গেছেন। মাত্র ১যুগের ব্যবধানে গড়ে তুলেছে বিশাল বিশাল অট্টালিকা। শতাধিক বিঘা জমি। ঢাকায় ফ্লাট বাড়ী।

স্থানীয় ও জাতীয় বিভিন্ন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় এ মাদক ব্যবসায়ীদের দোড়ঝাপ শুরু হয়েছে। গত ১৮/০৫/২০১৭ তারিখ রাত ৯টা ৫৪ মিনিটে সে মোবাইলে ফোন করে জানতে চাই তাদের নামে নিউজটি কে করেছে। তার নাম তাকে দেয়ার জন্য পিড়াপিড়ি করতে থাকে। তাদের নামে নিউজ না করার জন্য মোবাইলে জানায়।

গত মঙ্গলবার সকাল ১১টা ৩মিনিটে জয়নাল তার মোবাইল ফোন থেকে কল করে তার নামে নিউজ না করার জন্য অনুরোধ করেন।

Comments are closed.