আগে যেতে মন্টেনিগ্রোর প্রধানমন্ত্রীকে ট্রাম্পের ধাক্কা

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রথমবার বিদেশ সফরে বেরিয়ে একের পর এক সমালোচনার শিকার হচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়ার হাত ধরতে গিয়ে বারবার প্রত্যাখ্যান হওয়ার ঘটনা নিয়ে ইন্টারনেট দুনিয়ায় তোলপাড় চলছে।

এরই মধ্যে মন্টেনিগ্রোর প্রধানমন্ত্রী মিলো ডুকানোভিচকে টান দিয়ে পিছনে সরিয়ে দিয়ে সামনের সারিতে জায়গা নেয়ার ঘটনা নতুন করে সমালোচনার জন্ম দিয়েছে ট্রাম্প।

বৃহস্পতিবার বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত ন্যাটো সম্মেলনে এই কাণ্ড ঘটান ট্রাম্প। ওই সম্মেলনে ন্যাটো অন্তর্ভুক্ত ২৭ সদস্য দেশের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সেখানে সবাইকে নিয়ে দলীয় ছবি তোলার প্রস্তুতি চলছিল।

এসময় পেছন থেকে ডুকানোভিচকে সজোরে টেনে পেছনে সরিয়ে সামনের সারিতে আসেন ট্রাম্প। যেনো তাকেই সামনে থাকতে হবে। ভাবটা এমন, যুক্তরাষ্ট্রের মতো ক্ষমতাধর রাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হয়ে তিনি পিছনে থাকবেন আর ডুকানোভিচ সামনে! কোনোভাবেই ট্রাম্প সেটা মেনে নিতে পারেননি। এজন্যই নিজেকে কেন্দ্রে রাখার চেষ্টা বহাল রেখেছেন তিনি।

তবে এ ঘটনায় ডুকানোভিচকে একটুও বিব্রত হতে দেখা যায়নি। কেউ তাকে হটিয়ে দিচ্ছে বুঝতে পেরে সেদিকে ঘুরে ট্রাম্পকে দেখতে পান তিনি। মুচকি হেসে ট্রাম্পকে সমর্থনই করেন তিনি। ভঙ্গিটা এমন যে সামনের সারি তো ট্রাম্পের জন্যই।

তবে ডুকানোভিচের হয়ে সামাজিক মাধ্যমে এই ঘটনার নিন্দা জানাচ্ছে মানুষ। এই উদ্ভট মানুষটা আর কি কি দেখাবেন সেটাই এখন দেখার অপেক্ষা।

Comments are closed.