আজ কক্সবাজারে ১৬টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আজকের কক্সবাজার সফরে কক্সবাজারের ১৬টি উন্নয়ন প্রকল্পে উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন। এর মধ্যে রয়েছে বহুল আলোচিত ও প্রত্যাশিত মেরিন ড্রাইভ সড়ক। স্বপ্নের এই মেরিড্রাইভ সড়ক প্রকল্পে খরচ হয়েছে এক হাজার ৪০ কোটি টাকা। ২০০৯ সালে ক্ষমতায় আসার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পঞ্চম সফর এটি।

প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, শনিবার সকাল ৯টা ৪০ মিনিটে কক্সবাজার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে বাংলাদেশ বিমানের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ উড়োজাহাজ চলাচল উদ্বোধন করবেন তিনি।

প্রকল্পগুলো হলো- দীর্ঘ প্রতীক্ষিত কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কক্সবাজার আইটি পার্ক, নাফ ট্যুরিজম প্রকল্প এবং মহেশখালিতে দুইটি ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল সম্প্রসারণ।

পরে সেখান থেকে তিনি ইনানি এলাকায় যাবেন। সেখানে তিনি কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ উদ্বোধন করবেন। সড়ক ও মহাসড়ক বিভাগের তত্ত্বাবধানে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী ৮০ কিলোমিটার মেরিন ড্রাইভ নির্মাণ করেছে। বিকেলে প্রধানমন্ত্রী শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম থেকে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে ৬টি উন্নয়ন প্রকল্প উদ্বোধন করবেন। পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এক জনসভায় ভাষণ দেবেন। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্র একথা জানায়।

বাকি প্রকল্পগুলো হলো- কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ, কক্সবাজার গভর্নমেন্ট গার্লস কলেজের ১শ’ আসনের ডরমেটরি, কক্সবাজার গভর্নমেন্ট কলেজের একাডেমিক ভবন-কাম-পরীক্ষা হল, কক্সবাজার গভর্নমেন্ট কলেজের ১শ’ আসনের ছাত্রীনিবাস, বঙ্গমাতা ফজিলাতুননেছা মুজিব কলেজের দুইতলা একাডেমিক ভবন, উখিয়া এবং মহেশখালি-আনোয়ারা গ্যাস সরবরাহ লাইন।

একই স্থানে শেখ হাসিনা কক্সবাজার সদর উপজেলার বাকখালি নদীর ওপর খুরু স্কুল ঘাটে ৫৯৫ মিটার পিসি বক্স-গার্ডার সেতু, কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কক্সবাজার আইটি পার্ক, মহেশখালিতে এনার্জি বাংলাদেশ লিমিটেডের অধীনে ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল, মহেশখালিতে সামিট এলএনজি’র ভাসমান দ্বিতীয় এলএনজি টার্মিনাল, মহেশখালিতে সিঙ্গেল পয়েন্ট মরিন্ট (এসপিএম) প্রকল্প, নাফ ট্যুারিজম প্রকল্প, কুতুবদিয়া কলেজের একাডেমিক ভবন এবং কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের অফিস ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন।

Comments are closed.