বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে দেশে ফিরল শিশু সহ ১৩ নারী

ইয়ানুর রহমান : ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচার হওয়া এক শিশুসহ ১৩ বাংলাদেশি নারী আড়াই বছর পর বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় পুলিশ।

শুক্রবার রাতে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিট প্রক্রিয়ায় ভারতের পেট্রাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে ।

ফেরত আসা নারীরা হলো, শারমিন খাতুন, মালা, পায়েল, লাইজু, সাদিয়া, রেনজু, রিনা, সাগরি খানম, মাজেজা, তহমিনা, রুনা, শাহনাজ ও শিশু রুমি। এদের বাড়ি যশোর, সাতক্ষীরা, ঠাকুরগা , ঢাকা, ফরিদপুর, নড়াইল ও খুলনা জেলার বিভিন্ন এলাকায়।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ওসি ওমর শরীফ জানান, ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে দালালরা তাদের সীমান্তের অবৈধ পথে ভারতে নিয়ে যায়। পরে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতের মুম্বাই শহর থেকে পুলিশ তাদের আটক করে জেল হাজতে পাঠায়। সেখান থেকে নবজীবন শেল্টার হোম নামে একটি এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে নিজেদের আশ্রয়ে রাখে।

পরে দুই দেশের স্বরাস্ট্র মন্ত্রনালয়ের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটে তারা দেশে ফেরত আসে। ইমিগ্রেশন পুলিশ কাগজ পত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে পোর্ট থানা পুলিশের হাতে তুলে দেন বলে জানান ওসি।

বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের ওসি অপূর্ব হাসান জানান, স্ব-রাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের নির্দেশে ফেরত আসা নারীদের ঢাকা আহসানিয়া মিশন ড্যাম নামের একটি এনজিওর হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে। তারা এসব নারীদের অভিভাবকদের হাতে তুলে দিবেন।

Comments are closed.