কেশবপুরে ‘গোলাগুলিতে’ দুই ‘ডাকাত’ হতাহত

ইয়ানুর রহমান : যশোরের কেশবপুরের পল্লীতে ডাকাত দলের গোলাগুলিতে দুই ডাকাত ব্যক্তি হতাহত হয়েছে। ডাকাতদলের মধ্যে গুলিবিনিময়কালে তারা হতাহত হয়েছে বলে পুলিশের দাবি।

নিহত ইউনুছ হোসেন(৪০) সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি উপজেলার মণিপুর গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে। আহত আশরাফ হোসেন (২৮) কেশবপুরের দেউলি গ্রামের আব্বাস আলীর ছেলে।

বৃহস্পতিবার ভোররাতে কেশবপুর উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়নের দেউলির মোড়ে রাস্তার ওপর কথিত গোলাগুলির ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুটি রাম দা উদ্ধার করেছে।

কেশবপুর থানার ওসি শহিদুল ইসলাম শহিদ বলেন, দেউলি মোড়ে দুই দল ডাকাতের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ডাকাতদের প্রায় সকলে পালিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে আহত অবস্থায় দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হয়। কর্তব্যরত ডাক্তার এদের একজনকে মৃত ঘোষণা করে। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মৃত ব্যক্তি ইউনুছ; আর আহত ব্যক্তি আশরাফ। ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটারগান, দুটি রাম দা উদ্ধার করা হয়েছে ।

কেশবপুর থানা পুলিশ বলছে, নিহত ইউনুছের বিরুদ্ধে ডাকাতি, অস্ত্র ও হত্যা মামলা রয়েছে। আর আশরাফের বিরুদ্ধে একটি ডাকাতি ও একটি অস্ত্র মামলা আছে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার আব্দুর রশিদ বলেন, গুলিবিদ্ধ ইউনুছ হাসপাতালে আনার আগেই মারা গেছেন।

বন্দুকযুদ্ধ, হত্যা ও অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় কেশবপুর থানায় তিনটি মামলা হয়েছে বলে জানান থানার ওসি।

Comments are closed.