হরিণাকুন্ডুর একটি সড়কের বেহাল দশা “রাস্তা তো নয় যেন যুদ্ধ ক্ষেত্র”

স্টাফ রিপোর্টার,ঝিনাইদহঃ

রাস্তাটি প্রথমে দেখলে মনে হবে সদ্য শেষ হওয়া কোন যুদ্ধ ক্ষেত্র। কিন্ত বাস্তবে তা নয়। এটি ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডু উপজেলার একটি রাস্তার চিত্র। রাস্তার উপরীভাগে বড় বড় গর্ত। পিচ আর খোয়া উঠে গোটা সড়ক লাল বর্ন ধারণ করেছে। ৩ বছর আগে চলাচলের অযোগ্য হলেও অনেকটা দায় ঠেকে মানুষ এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করেন।

 

পায়রাডাঙ্গা গ্রামের সোহরাব হোসেন জানান, হরিণাকুন্ডুর ঋষিপাড়া থেকে পায়রাডাঙ্গা মসজিদ মোড় ভায়া সিঙ্গা গ্রামের এই রাস্তাটি ২০১০ সালের দিকে নিমার্ন করে হরিণাকুন্ডু এলজিইডি। সে সময় কাচা রাস্তার পরিবর্তে ১৫ কিলোমিটার রাস্তা পাকা করণ করা হলেও এই ৮ বছরে কোন রক্ষনাবেক্ষন করা হয়নি। গোটা সড়ক জুড়ে ক্ষত বিক্ষতের চিত্র। মহে হচ্ছে কোন যুদ্ধ ক্ষেত্র।

 

ফলসি ইউনিয়নের মেম্বর সিঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা গোলাম রহমান জানান, রাস্তাটি এতই খারাপ যে এখন যানবাহন তো দুরের কথা মানুষও চলাচল করতে পারে না। বর্সার আগে রাস্তাটি মেরামত করা না হলে গ্রামের মানুষের অবর্ননীয় কষ্ট পোহাতে হবে।

 

হরিণাকুন্ডুর ফলসি ইউনিয়নের ফজলুর রহমান জানান, এই রাস্তাটি ভৌগলিক কারণে অনেক গুরুত্বপুর্ন। উপজেলা শহরের সাথে যুক্ত থাকায় ভালকী, পায়রাডাঙ্গা, সিঙ্গাসহ অন্তত ১০ গ্রামের মানুষ এই রাস্তা দিয়ে চলাচল করেন।

 

রাস্তাটি দ্রæত মেরামত করা না হলে গ্রামীন যোগাযোগ ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়বে। বিষয়টি নিয়ে এলজিইডির হরিণাকুন্ডু উপজেলা প্রকৌশলী বিকাশ চন্দ্র নন্দি জানান, রাস্তাটি সংস্কারের জন্য তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। তিনি জানান,  মেইনটেনেন্স খাত থেকে অর্থ বরাদ্দ করে রাস্তাটি সংস্কার করা যায় কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Comments are closed.