অভিজাত তিনটি হোটেলের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

স্টাফ রিপোর্টারঃ দীর্ঘদিন ধরে হোটেল সীগালের দখলকৃত ৫০ শতক, হোটেল প্রাসাদ প্যারাডাইসের ২৫ শতক এবং তরঙ্গ রেঁস্তোরার ২৫ শতক জায়গা উদ্ধার করা হয়েছে। উচ্ছেদ করা হয়েছে সেখানে গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা। জমি দখলমুক্ত করা হয়েছে। বুধবার সকাল ১০টা থেকে ভ্রাম্যমান আদালতের এক অভিযানে এই দখলমুক্ত অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। জমিটি দখলমুক্ত করে সাথে সাথে সেখানে কাটাতার দিয়ে সীমানা দেয়াল তৈরি করা হয়েছে।
জানা যায়, সৈকত এলাকার নামী হোটেল সী-গাল নির্মাণকাল থেকে ৩০ ফুট প্রস্তের ৫০ শতক সরকারি জমি দখলে রেখেছিলেন। দীর্ঘ পর হলেও সেই জমি দখলমুক্ত করতে উদ্যোগ নেন প্রশাসন। তার অংশ হিসেবে ওই জমি উদ্ধার করতে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করা হয়। কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহম্মদ নজরুল ইসলাম ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) পঙ্কজ বড়ুয়া নেতৃত্ব দিয়ে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। উচ্ছেদে সহযোগিতায় রয়েছে বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও আনসার সদস্য। অবৈধ দখলে থাকা জমিটিতে থাকা সকল স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। পরে সেখানে কাটতারের বেড়া দিয়ে সীমানা দেয়াল দেয়া হয়।


এ ব্যাপারে কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহম্মদ নজরুল ইসলাম বলেন, ‘গত এক সপ্তাহ ধরে উচ্ছেদ প্রক্রিয়া শুরু হয়। পরিমাপের মাধ্যমে অবৈধ দখলে রাখা জমি চিহ্নিত করা হয়। এর মধ্যে হোটেল কর্তৃপক্ষ স্ব-উদ্যোগে উচ্ছেদের সময় দেয়া হয়। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে মধ্যে তা উচ্ছেদ করে নেয়নি। তাই বাধ্য হয়ে প্রশাসন স্থাপনা উচ্ছেদ করে সরকারি জমিটি দখলমুক্ত করেছে।’
সী-গাল ছাড়াও সরকারি জমির তার দক্ষিণ পাশের হোটেল প্রাসাদ প্যারাডাইস, ফুড ভিলেজসহ সব স্থাপনা উচ্ছেদ করা হচ্ছে। দিনব্যাপী এই অভিযান চলবে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।

Comments are closed.