পেকুয়ায় শিক্ষক সমাজের মানববন্ধন

বিশেষ প্রতিবেদকঃ পেকুয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন করেছে উপজেলা শিক্ষক সমাজ। গত ৩০ মার্চ উপজেলা শিক্ষক সমাজের উদ্যোগে বিকাল ৩ টা থেকে ৪ টা পর্যন্ত পেকুয়া চৌমুহনী এবিসি অঞ্চলিক মহাসড়কের দুপাশে শত শত ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষক শিক্ষিকা দীর্ঘ লাইন ধরে দাড়িয়ে মানববন্ধন করেন। পেকুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সভাপতি ও পেকুয়া মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাষ্টার হানিফ চৌধুরীর বিরুদ্ধে বন বিভাগের দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা অবিলম্বে প্রত্যাহার ও স্বপদে পুনবহালের দাবীতে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পেকুয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সেক্রেটারী মাষ্টার নাছির উদ্দিনের পরিচালনায় অনুষ্টিত হয়। উক্ত মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন উজানটিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম, শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, টইটং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহেদুল ইসলাম চৌধুরী, পেকুয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি এম, আজম খান, পেকুয়া জিএমসি ইনষ্টিটিউশনের প্রধান শিক্ষক জহির উদ্দিন, রাজাখালী এয়ার আলী খান আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইফুল ইসলাম, পেকুয়া উপজেলা প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারী ও উপজেলা জাতীয় পার্টির সহ সভাপতি সাংবাদিক দিদারুল করিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা এস,এম শাহাদাত হোসাইন, পেকুয়া উপজেলা মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষক/কর্মচারী পরিষদের সাধারন সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, নাপিতখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ওসমান গণি, সমাজ সেবক সাইফুল ইসলাম, হোসনে আরা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাজেম উদ্দিন, পেকুয়া জিএসমির সিনিয়র শিক্ষক জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। তাছাড়া মানববন্ধনে বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, সহকারী শিক্ষক, শিক্ষিকাবৃন্দ, বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রী ও বিভিন্ন পেশাজীবি লোকজন অংশগ্রহন করেন। বক্তারা বলেন, নির্দোষ থাকা স্বত্তেও মাষ্টার হানিফ চৌধুরীকে বন বিভাগের কতিপয় কর্মকতার মিথ্যা মামলায় জড়ানো হয়েছে। যার কারনে বিদ্যালয়ের ছাত্র/ছাত্রীদের লেখাপড়ার দারুণ ক্ষতি সাধিত হচ্ছে। তারা অবিলম্বে সুষ্টু তদন্ত সাপেক্ষে মাস্টার হানিফ চৌধুরীকে উক্ত ষড়যন্ত্রমুলক মামলা থেকে বাদ দেওয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের নিকট দাবী জানান এবং ওই বিদ্যালয়ের কমলমতি ছাত্রছাত্রীদের লেখাপড়ার পরিবেশ পুনরায় ফিরিয়ে দেওয়ার দাবী জানান।

Comments are closed.