বেসরকারিভাবে সাক্কু বিজয়ী

বিশেষ প্রতিনিধিঃ কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু।

১০৩ কেন্দ্রের মধ্যে ১০১টির (দুটি স্থগিত) প্রাপ্ত ফলাফলে সাক্কু পেয়েছেন ৬৮ হাজার  ৯৪৮ এবং আওয়ামী লীগ প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা পেয়েছেন ৫৭ হাজার ৮৬৩ ভোট।

কুসিক নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার রকিব উদ্দিন মণ্ডল রাত ৯টার দিকে চূড়ান্ত এ ফলাফল ঘোষণা করে সাক্কুকে বেসরকারিভাবে বিজয়ী ঘোষণা করেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪টায় শেষ হয়। ভোট কেন্দ্রগুলোতে সকাল থেকেই ভোটারদের উপস্থিতি ছিল ভালো।

অন্যদিকে জেএসডির শিরিন আক্তার ২৮৩ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মামুনুর রশীদ ৭৬৬ ভোট পেয়েছেন।

এদিকে ১০৩টি কেন্দ্রের মধ্যে গোলযোগের কারণে দুটি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করেছে কমিশন। স্থগিত দুই কেন্দ্রে ভোট রয়েছে ৫ হাজার ২৫৫।

ফলাফল ঘোষণার পর সাক্কু সাংবাদিকের বলেন, আমার এ বিজয় কুমিল্লা নগরবাসীর বিজয়। আমি এ বিজয়ের মধ্য দিয়ে নগরীর অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করার উদ্যোগ নেব।

তিনি বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে এক লাখ ৭০ হাজার ভোট কাস্ট হতো, আমি পেতাম এক লাখ ২০ হাজার।

এর আগে ২০১২ সালের ৫ জানুয়ারি নির্বাচনে সাক্কু আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ও সীমার বাবা অধ্যক্ষ আফজল খানকে হারিয়ে মেয়র নির্বাচিত হয়েছিলেন। ওই নির্বাচনে সাক্কু পেয়েছিলেন ৬৫ হাজার ৫৭৭ এবং অধ্যক্ষ আফজল খান পেয়েছিলেন ৩৬ হাজার ৪৭১ ভোট।

Comments are closed.