‘ওয়ালটন ল্যাপটপ ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করেছে’

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ গুণগতমান, সর্বাধুনিক ফিচার, আকর্ষণীয় ডিজাইন ও সাশ্রয়ী দাম ইত্যাদি কারণে প্রযুক্তিপ্রেমীদের কাছে বাড়ছে ওয়ালটন ল্যাপটপের কদর। বাজারে আসার কয়েক মাসের মধ্যেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে ওয়ালটন ল্যাপটপ।

অন্যান্য ব্র্যান্ডের একই কনফিগারেশনের ল্যাপটপের চেয়ে দামে সাশ্রয়ী হওয়ায় এবং কিস্তিতে কেনার সুযোগ থাকায় ওয়ালটন ল্যাপটপ বেছে নিচ্ছেন ক্রেতারা।

ওয়ালটন সূত্রে জানা যায়, বর্তমান সময়ে প্রযুক্তিপণ্যের গুরুত্ব বিবেচনায় মানের প্রশ্নে কোনো আপোস করেনি দেশীয় এই ব্র্যান্ড। ওয়ালটনের ল্যাপটপে ব্যবহৃত হয়েছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তি। সর্বোচ্চ মান নিশ্চিত করতে ওয়ালটন, ইন্টেল, মাইক্রোসফট এবং বাংলাদেশের বিজয় বাংলার যৌথ উদ্যোগে তৈরি হচ্ছে ল্যাপটপ।

ফলে অত্যাধুনিক সুবিধার মানসম্মত ল্যাপটপ পাচ্ছেন ক্রেতারা।কম্পিউটার বাজার ঘুরে জানা গেছে, স্মার্ট ডিজাইন, আকর্ষণীয় কালার ও অত্যাধুনিক ফিচার সম্বলিত প্যাশন, টামারিন্ড, কেরোন্ডা ও ওয়াক্সজ্যাম্বু এই চারটি সিরিজের মোট ২২টি মডেলের ওয়ালটন ল্যাপটপ পাওয়া যাচ্ছে।

বাংলাদেশে একমাত্র ওয়ালটন ল্যাপটপেই প্রথমবারের মতো কি-বোর্ডে বাংলা ফন্ট ও বিল্ট-ইন বিজয় বাংলা সফটওয়্যার দেয়া হয়েছে। ব্যবসায়ী, চাকরিজীবী, গেমার, ওয়েব ডিজাইনার ও শিক্ষার্থীদের ব্যবহারের দিক বিবেচনা করেই ভিন্ন ভিন্ন মডেল ও দামের ল্যাপটপ বাজারে ছেড়েছে ওয়ালটন। ফলে খুব দ্রুত ল্যাপটপ ক্রেতাদের আস্থা অর্জন করেছে ওয়ালটন।

এছাড়া সব মডেলের ওয়ালটন ল্যাপটপেই রয়েছে দুই বছরের ওয়ারেন্টি সুবিধা। সর্বোচ্চ মানের বিক্রয়োত্তর সেবা দিতে আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় দেশব্যাপী ছড়িয়ে আছে অসংখ্য ওয়ালটন সার্ভিস সেন্টার ও পয়েন্ট।

Comments are closed.