‘অভিযান শেষ হয়নি, জঙ্গিরা এখনো ভেতরে’

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ সিলেটের আতিয়া মহলে প্যারা কমান্ডোর অভিযান এখনো শেষ হয়নি। ভেতরে জঙ্গিরা এখনো অবস্থান করছে বলে জানিয়েছেন ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফখরুল আহসান। শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় এক ব্রিফিংকালে তিনি এ তথ্য জানান। ফখরুল আহসান বলেন, ‘জঙ্গিরা নির্দিষ্ট কোনো ফ্লোরে থেমে নেই। তারা বিভিন্ন ফ্লোরে যাতায়াত করছে। ভেতরে বেশ কয়েকজন জঙ্গি রয়েছে।’

‘জঙ্গিরা বোমা পেতে রেখেছিল। যা অভিযানকালে বিস্ফোরিত হয়েছে।’ বলেন তিনি।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ছিল যারা জিম্মি ছিল তাদের সবাইকে নিরাপদে যেন উদ্ধার করা হয়। আমরা জিম্মিদের নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখেছিলাম। এ পর্যন্ত ৭৮ জনকে নিরাপদে উদ্ধার করেছি। এর মধ্যে ৩০ জন পুরুষ, ২৭ জন নারী এবং বাকিরা শিশু।

দুপুর ২টায় মূল অভিযান শুরুর পরপরই অভিযানস্থলে একের পর এক গুলি ও বোমা বিস্ফোরণের শব্দ শুনতে পাওয়া যায়। তবে সাড়ে চারটার পর গোলাগুলির শব্দ কিছুটা কমে আসে বলে ঘটনাস্থলে থাকা পরিবর্তনের সিলেট প্রতিনিধি দিপু সিদ্দিকী জানিয়েছেন।

দিপু জানান, অভিযান চলাকালে দুইজন আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থলে থাকা অ্যাম্বুলেন্সে তাদের নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, অভিযান শুরুর ১৫ মিনিটের একজনকে অ্যাম্বুলেন্সে তোলা হয়। এর ৫/১০ মিনিট পরেই অপর একজনকেও অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তবে তারা কীভাবে আহত হয়েছেন বিস্তারিত জানা যায়নি।

এর আগে সকাল ৯টা ৩৫ মিনিটে ‘অপারেশন টোয়ালাইট’ শুরু করে সেনাবাহিনী। ঘটনাস্থলে প্রস্তুত রাখা হয়েছে ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি, পুলিশের সাঁজোয়া যান ও কয়েকটি অ্যাম্বুলেন্স।

‘আতিয়া মহলে’সন্দেহভাজন জঙ্গি আস্তানা শনিবার সকালেই ঘিরে ফেলেন সেনাবাহিনীর প্যারা কমান্ডোরা।

শুক্রবার সকালে জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে ঘিরে রাখা বাড়ির ভেতর থেকে ২ রাউন্ড গুলি করে জঙ্গিরা। জবাবে পুলিশও পাল্টা ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এ সময় একটি গ্রেনেড বিস্ফোরণের শব্দ পাওয়া যায় সেখান থেকে। এছাড়া বাড়ির ভেতর থেকে কয়েকজনকে একসঙ্গে আল্লাহু আকবার ধ্বনি দিতে শোনা যায়।

বৃহস্পতিবার রাত ৩টা থেকে দক্ষিণ সুরমার শিববাড়িস্থ জহির তাহির মেমোরিয়াল স্কুলসংলগ্ন বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়। রাতে বাড়ি থেকে বিস্ফোরণের শব্দও শোনা যায় বলে স্থানীয়রা জানান।

Comments are closed.