ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি
কক্সবাজারে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত হয়েছৈ। এ উপলক্ষে বুধবার (২২ মার্চ) সকালে শিশু মেলা, র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে। র‌্যালীটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আসাদ কমপ্লেক্সস্থ ইফার সম্মেলন কক্ষে মিলিত হয়। এরপর ইসালামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজার এর উপ-পরিচালক খাজা আহমদ মিয়াজীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো: আলী হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইসলামিক ফাউডেশন প্রতিষ্ঠা করে দেশে ইসলাম প্রচারে অতুলনীয় ভূমিকা রেখে গেছেন। বঙ্গবন্ধুর এই অবদান জাতি আজীবন স্মরণে রাখবে।
জেলা প্রশাসক আরো বলেন, ধর্মীয় শিক্ষা ও ইসলামের মূল্যবোধে জাতিকে সমৃদ্ধ করতে জাতির জনকের ছিল মূল উদ্দেশ্য। কিন্তু দু:খজনক হলেও সত্য তিনি একাজ সম্পূর্নভাবে শেষ করে যেতে পারেন নাই। তবুও তাঁর আদর্শ নিয়ে এখনও আমরা অনুপ্রাণিত হই।
ইমামদের উদ্দেশ্যে জেলা প্রশাসক মো. আলী হোসেন বলেন, জঙ্গীবাদ ও নাশকতা বিরোধী কর্মকান্ডের খারাপ দিকগুলো সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে হবে। ইসলামের প্রকৃত শিক্ষার দিকে মানুষকে ধাবিত করতে হবে। এ ছাড়া মসজিদে প্রতি জুমার নামাজের আগে ধর্মীয় দৃষ্টিকোণের আলোকে জঙ্গিবাদের কুফল বয়ান করতে ইমামদের প্রতি আহবান জানান তিনি।
ইসালামিক ফাউন্ডেশন কক্সবাজার এর সহকারী পরিচালক মুহাম্মদ সরওয়ার আকবরের স্বাগত বক্তব্যে শুরু হওয়া সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিষ্ট্রেট মোহম্মদ সেলিম শেখ, চকরিয়া সিটি কলেজের অধ্যক্ষ সালাহ উদ্দিন খালেদ, বাংলাদেশ ইমাম সমিতিরি কক্সবাজার জেলা সভাপতি কাজী আলহাজ্ব মাওলানা সিরাজুল ইসলাম ছিদ্দিকী। সিনিয়র ফিল্ড সুপারভাইজার সাইফুদ্দিন খালেদের পরিচালনায় সভায় ফিল্ড অফিসার ফজল করিমসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে সরকারী যাকাত ফান্ড থেকে সেলাই প্রশিক্ষকেন্দ্রে ২০১৫/১৬ অর্থ বছরে কোর্স সম্পন্নকারী ৯ জন দুস্থ মহিলার প্রতিজনকে একটি করে সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়। সভায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা মো. রুহুল মতিন। উল্লেখ্য, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৪২ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী জেলা শহর ছাড়াও ৮ উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। সেখানে স্থানীয় প্রশাসনিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

Comments are closed.