শৈলকুপার ইউএনও’র সমাধানে বেঁচে গেল ভাঙ্গতে বসা ১৬ বছরের সংসার

স্টাফ রিপোর্টার,ঝিনাইদহঃ

পারিবারিক কলহের জেরে ভাঙ্গতে বসেছিল একটি সংসার। মেয়েটির নাম সাবানা, বাড়ী শৈলকুপার আবাইপুর গ্রামে। পিতা খোকন শেখ। ১৬ বছর আগে বিয়ে হয় হাবিবপুর গ্রামের মৃত রাজ্জাক বিশ্বাসের ছেলে রাশিদুলের সাথে। প্রায় ১৬ বছর সংসার জীবনে তাদের দুটি কণ্যা সন্তান রয়েছে।

 

বিগত ৬/৭ মাস পূর্বে সাংসরিক জীবনে তাদের কলহের সৃষ্টি হয়। এরই এক পর্যায়ে স্বামীর লাঞ্ছনার শিকার হয় স্ত্রী। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকাবস্থায় উপায়ন্ত না পেয়ে স্ত্রী সাবানা উপজেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে লিখিত অভিযোগ দেন।

 

শাবানা খাতুন, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরে অভিযোগ করার পর উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা অভিযোগের বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয়কে অবহিত করেন। ফলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার মাধ্যমে উভয় পক্ষকে ডেকে এই সুন্দর সমাধান দেন। পরবর্তীতে যাতে এমন আর না হয় তাই উভয় পক্ষ চুক্তি সাক্ষর করেন। তাদের সংসারে দুটি কণ্যা সন্তান রয়েছে। তারা লেখাপড়া করে।

 

সুন্দর সমাধান পেয়ে স্বামী-স্ত্রী দুজনে হাতে হাত ধরে বাড়ী ফিরে যান। এসময় উপস্থিত ছিলেন মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা রেশমা খানম, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি আব্দুল ওহাব ও এইচ,এম ইমরান। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মহতী উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন উপস্থিতরা।

Comments are closed.