বাংলাদেশের কাছে হারে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের মৃত্যু ঘোষণা!

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ ১৮৭৭ সালের ১৫ মার্চ শুরু হয়েছিল ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম টেস্ট। ১৪০ বছর পার করে ২২৫৪তম ম্যাচটি কলম্বোতে শুরু হয়েছিল ২০১৭ সালের ১৫ মার্চই। ১৮৮২ সালে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ‘অ্যাশেজ’ হেরেছিল ক্রিকেটজনক ইংল্যান্ড। তারপর একটি ইংলিশ সংবাদপত্র ইংল্যান্ডের ক্রিকেটের মৃত্যুর ঘোষণা দিয়ে তাদের কাগজে ‘এপিটাফ’ ছেপেছিল। ঠিক একই কাজ এবার করলো শ্রীলঙ্কার বিখ্যাত সংবাদপত্র আইল্যান্ড। বাংলাদেশের কাছে টেস্ট হারের পর ১৯ মার্চ ২০১৭কে শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের মৃত্যুদিবস ঘোষণা করেছে তারা। সেই সাথে ১৩৫ বছর আগে ইংল্যান্ডের সংবাদপত্রের মতো করে তারাও লঙ্কান ক্রিকেটের ‘এপিটাফ’ ছেপেছে। লঙ্কান ক্রিকেটের মৃতদেহ পুড়িয়ে ‘ছাই’ বাংলাদেশে পাঠানোর কথাও বলেছে তারা।

বাংলাদেশের কাছে শ্রীলঙ্কার হারের পর আইল্যান্ডে প্রকাশিত এপিটাফটা এমন :

‘গভীর দুঃখের সাথে জানানো যাচ্ছে ওভালে ২০১৭ সালের ১৯ মার্চ শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটের মৃত্যু হয়েছে। বন্ধু ও সুহৃদরা এই মৃত্যুতে শোকাহত। আর.আই.পি। বিশেষ দ্রষ্টব্য : মৃতদেহ পুড়িয়ে ছাইগুলো বাংলাদেশে পাঠানো হবে।’

এর সাথে কফিনে মৃতদেহ বয়ে নেওয়ার একটা ক্যারিকেচারও ছেপেছে আইল্যান্ড।

শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটে আসলে ১৯ মার্চ অন্ধাকারাচ্ছন্ন দিন হয়ে থাকবে। বাংলাদেশ তাদের শততম টেস্টে ঐতিহাসিক জয় পেয়েছে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তাদের মাটিতে মুশফিকুর রহীমের দলের জয় ৪ উইকেটের। যেটি টাইগারদের ইতিহাসে লঙ্কানদের বিপক্ষে প্রথম। সিরিজটা ১-১ এ ড্র। অথচ কদিন আগে এই শ্রীলঙ্কাই অস্ট্রেলিয়াকে দেশের মাটিতে হোয়াইটওয়াশ করেছে। কিন্তু বাংলাদেশের কাছে ১৮তম টেস্টে গিয়ে প্রথম হারটা শ্রীলঙ্কানরা মেনে নিতে পারেনি কিছুতেই।

ছবি : ইংল্যান্ডের সেই বিখ্যাত এপিটাফ

আইল্যান্ড সংবাদপত্র রোববারের এই হারের ধকল নিতে না পেরে কেবল দিনক্ষণ-দলের নাম বদলে দিয়ে ১৮৮২ সালে ইংল্যান্ডে প্রকাশিত সেই এপিটাফটাই প্রকাশ করেছে। ইংলিশ সংবাদপত্রটি লিখেছিল, ‘গভীর দুঃখের সাথে জানানো যাচ্ছে ১৮৮২ সালের ২৯ আগস্ট ওভালে ইংলিশ ক্রিকেটের মৃত্যু হয়েছে। বন্ধু ও সুহৃদরা এই মৃত্যুতে শোকাহত। আর.আই.পি। বিশেষ দ্রষ্টব্য : মৃতদেহ পুড়িয়ে ছাইগুলো অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানো হবে।’

সেবার ইংল্যান্ডে গিয়ে ইংলিশদের খুন করেছিল অস্ট্রেলিয়া। এবার যে বাংলাদেশের হাতে শ্রীলঙ্কার মাটিতে খুন হলো লঙ্কানরাই।

Comments are closed.