ঝিনাইদহের শৈলকুপার মদনডাঙ্গা,ভাটই,মহেশপুর,হরিনাকুন্ডুতে জুয়ার রমরমা বানিজ্য ! প্রশাসন নিরব কেন ?

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার মদনডাঙ্গা, ভাটই, মহেশপুরে আজমপুর, এবং হরিনাকুন্ডু বাজারে যাত্রা পালা ও বিজয় মেলার নামে জমজমাট জুয়ার আসর বসেছে। আশপাশ জেলার কুখ্যাত জুয়াড়িরা সেখানে ভীড় করছে। মদনডাঙ্গার ভুট্রো ও রেন্টু নামে দুই ব্যক্তি এই জুয়ার আসরের দায়িত্ব পালন করছে বলে এলাকাবাসি জানায়। তাদের ভাষ্যমতে কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহের সীমান্তবর্তী এই স্থানটি ঝুকিপুর্ন হলেও টাকার কাছে সবার মাথা বিক্রি হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন এলাকার সচেতন মানুষ।

 

তাদের অভিযোগ ঘাটে ঘাটে যার যার প্রাপ্য পৌছে দেওয়া হচ্ছে। ফলে মেলার নামে আয়োজকরা যা ইচ্ছা তাই করছে। অভিযোগ পাওয়া গেছে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে জেলা প্রশাসন ও পুলিশের কাছ থেকে যাত্রাসহ সুস্থ বিনোদনের জন্য মদনডাঙ্গায় মেলার অনুমতি নেওয়া হয়। কিন্তু অনুমতি নেবার পরই আয়োজকদের আসল চেহারা বেরিয়ে পড়ে। ফলে সুস্থ সাংস্কৃতির বিকাশ রুদ্ধ হয়ে পড়েছে।

 

এলাকার যুব সমাজ লাল নীল আলোয় বেসামাল হয়ে উঠেছে। এলাকায় চুরিদারি বৃদ্ধি পেয়েছে। শৈলকুপা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে দায়িত্ব পালন করলেও তাদের সামনেই জুয়া, ওয়ানটেন ও ফোর গুটির আসর চলছে। লটারির নামে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে জুয়াড়িদের কর্মী বাহিনী। লটারির টিকেট কিনতে মানুষ পা বাড়াচ্ছে ভিন্ন পথে। আর এ সব হচ্ছে প্রশাসনের নাকের ডগায়।

 

এলাকাবাসি মদনডাঙ্গার যাত্রাপালার নামে অশ্লিল নৃত্য ও জুয়ার আসর বন্ধ করে জুয়াড়িদের গ্রেফতারের দাবী তুলেছেন। বিষয়টি নিয়ে শৈলকুপা থানার ওসি তরিকুল ইসলাম কোন মন্তব্য করতে রাজি হন নি।

Comments are closed.