এগিয়ে আইভী

ওয়ান নিউজঃ প্রথমবারের মত দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের ভোট শেষে গণনা চলছে। নির্বাচনে মেয়র পদে সাতজন প্রার্থী থাকলেও মূলত লড়াই হচ্ছে প্রধান দুই মেয়র প্রার্থী আওয়ামী লীগের সেলিনা হায়াৎ আইভী ও বিএনপির সাখাওয়াত হোসেন খানের মধ্যে।

নাসিক নির্বাচন: ১৭৪টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ১১৪টি কেন্দ্রের ফলাফল পাওয়া গেছে, নৌকা পেয়েছে ১,১০,৫৬৪ টি ভোট ; ধানের শীষ ৬৩,৮৪৮টি ভোট

যদিও লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) প্রার্থী কামাল প্রধান ও কল্যাণ পার্টির রাশেদ ফেরদৌস বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানকে সমর্থন দিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান। অন্য তিন প্রার্থী হলেন- বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির মাহবুবুর রহমান ইসমাইল (কোদাল), ইসলামী আন্দোলনের মাসুম বিল্লাহ (হাতপাখা) ও ইসলামী ঐক্যজোটের ইজহারুল হক (মিনার)।

নির্বাচন, ভোট আর প্রার্থীদের পক্ষ-বিপক্ষ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় মশগুল ছিল নারায়ণগঞ্জবাসী। এখন শুধু অপেক্ষা ফলাফলের। এর আগে নির্বাচনের আলোচনায় ছিল প্রার্থীদের দেয়া নানা প্রতিশ্রুতি ও ব্যক্তি ইমেজ নিয়ে।

ভোট গ্রহণ শেষে নারায়ণগঞ্জবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে রিটার্নিং কর্মকর্তা নুরুজ্জামান তালুকদার বলেন, কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই সবার সহযোগিতায় উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে এবং শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

এর আগে সকাল ৮টা থেকে ২৭টি ওয়ার্ডে ভোটাররা সুষ্ঠু ও উৎসবমুখর পরিবেশে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এখানে মোট ৪ লাখ ৭৪ হাজার ৯৩১ জন ভোটার ছিলেন। ২৭ ওয়ার্ডে ২৭টি কাউন্সিলর পদে প্রার্থী ১৫৬ জন এবং সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলরের ৯টি পদে ৩৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

ভোটের দায়িত্বে ছিলেন প্রায় ৪ হাজার কর্মকর্তা। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সাড়ে ৯ হাজার সদস্য নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন।

Comments are closed.