প্রধানমন্ত্রীর বিমানে ত্রুটির মামলায় ৭ জন গ্রেফতার

ওয়ান নিউজঃ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমানে যান্ত্রিক ত্রুটির ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায় সাতজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি মিডিয়া) মো. মাসুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী উড়োজাহাজে মানবসৃষ্ট ত্রুটির ঘটনায় মঙ্গলবার রাত সাড়ে এগারোটায় বিমানবন্দর থানায় মামলা দায়ের করেন বিমানের পরিচালক (ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যাটারিয়াল ম্যানেজমেন্ট) উইং কমান্ডার (অব.) এমএম আসাদুজ্জামান।

বুধবার মামলাটি পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিটের কাছে হস্তান্তরের নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার আসাদুজ্জামান মিয়া।

মামলায় বিমানের ৯ কর্মকর্তা-কর্মীকে আসামি করা হয়, যারা বিমানের নিজস্ব তদন্তে সাময়িক বরখাস্ত হয়েছেন।

মামলার আসামিরা হলেন- বিমানের চিফ ইঞ্জিনিয়ার (প্রডাকশন) দেবেশ চৌধুরী, চিফ ইঞ্জিনিয়ার (কোয়ালিটি অ্যাসিউরেন্স) এস এ সিদ্দিক ও প্রিন্সিপাল ইঞ্জিনিয়ার (সিস্টেম অ্যান্ড মেইনটেইনেন্স) বিল্লাল হোসেন, প্রকৌশল কর্মকর্তা এস এম রোকনুজ্জামান, সামিউল হক, মিলন চন্দ্র বিশ্বাস, লুৎফুর রহমান, জাকির হোসাইন ও টেকনিশিয়ান সিদ্দিকুর রহমান।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে পানি শীর্ষ সম্মেলন-২০১৬’-এ অংশ নিতে চলতি বছরেরর ২৭ নভেম্বর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে ঢাকা ত্যাগ করেন। হাঙ্গেরি পৌঁছার আগেই যান্ত্রিক ত্রুটিতে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমানটি তুর্কেমেনিস্তানের আশখাবাদে জরুরি অবতরণ করে। এ ঘটনায় ২৮ নভেম্বর বিমান ও পর্যটন, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ আলাদাভাবে কমিটি গঠন করে। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে গত ৩০ নভেম্বর বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বিমানের ইঞ্জিনিয়ারিং ও কারিগরি বিভাগের ৬ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করার কথা জানান। মন্ত্রী তখন জানিয়েছিলেন, তেল চলাচলের পাইপে একটি নাট ঢিলা হওয়ার কারনে জ্বালানির চাপ কমে যাওয়ার বিমানটিকে জরুরি অবতরণ করতে হয়েছে। এক্ষেত্রে হিউম্যান ফেইল্যুর ফ্যাক্টর প্রধান বলে কমিটি চিহ্নিত করেছে।

সর্বশেষ এ ঘটনায় গত ১৪ ডিসেম্বর বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ৩জন শীর্ষ প্রকৌশলীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। বিমানমন্ত্রী বলেন, ‘বিমানের ওয়েল প্রেসার কমে যাওয়ার কারণ সেখানকার বি নাটটি ঢিলা ছিল। এক পর্যায়ে এটা নিশ্চিতভাবে বিপদজনক হতে পারত। আমাদের সৌভাগ্য আমাদের প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার কোনো ক্ষতি সাধন হয়নি। কিন্তু এর চেয়ে বড় রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তার প্রশ্ন আর আসতে পারে না। তিনি বলেন, ইতোমধ্যে তার জীবননাশের জন্য বহুবার চেষ্টা হয়েছে। কখনো একেবারে প্রকাশ্যে, কখনো গোপনে।

Comments are closed.