‘পিচ ফিক্সিং’ নিয়ে সিবিআই তদন্ত দাবি

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ  ভারতের ক্রিকেট অঙ্গন যেন এখন ঠিক হজম করে উঠতে পারেনি পুনে টেস্টের ফল। তিন দিনের মধ্যে শেষ হওয়া এই টেস্টের উইকেট নিয়ে আইসিসি এরই মধ্যে জবাব চেয়ে নোটিশ দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডকে (বিসিসিআই)। এবার বোর্ডের সাবেক সচিব অজয় শিরকে দাবি করলেন, এই উইকেট নিয়ে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআই তদন্ত করুক।

পুনের উইকেটে এত স্পিন বিষ ছিল, অস্ট্রেলীয় স্পিনারদেরই সামলাতে পারেনি ভারতের ব্যাটসম্যানরা। স্পিনের বিপক্ষে যাদের দক্ষতা সুখ্যাত। ভারতীয় পত্রপত্রিকায় লেখা হয়েছে, বোর্ডই নাকি মহারাষ্ট্র ক্রিকেট সংস্থাকে (এমসিএ) নির্দেশ দিয়েছিল, এমন উইকেট বানাতে হবে, প্রথম দিন থেকে যেন বনবন করে বল ঘোরে। আইসিসির ম্যাচ রেফারি এ উইকেটকে ‘বাজে’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। ছয়টি মানে টেস্ট উইকেটকে বিবেচনা করে আইসিসি। পুনের উইকেট ছিল মানের দিক দিয়ে পাঁচে।

ভারতীয় ক্রিকেটে পালাবদলের শিকার শিরকে এ নিয়ে বেশ গলা চড়িয়েছেন। তাঁর দাবি, উইকেট নিয়ে ‘পিচ ফিক্সিং’ হয়েছে। স্পট ফিক্সিংয়ের মতো এ–ও নাকি আরেক ফিক্সিং। শিরকে বলেছেন, ‘আমি চাই, সুপ্রিম কোর্ট যে প্রশাসকদের নিয়োগ দিয়েছেন, তারা একটা সিবিআই তদন্তের উদ্যোগ নিক। ভারতীয় ক্রিকেটকে এ ধরনের উইকেট বারবার ঝামেলায় ফেলেছে। এটাই আসল সময় এর শিকড় খুঁজে বের করা। প্রমাণ ছাড়াই এর-ওর দিকে অভিযোগের আঙুল তোলার বদলে আমি চাই সিবিআই তদন্ত করে আসল অপরাধীকে খুঁজে বের করুক।’

এর মধ্যে বড় ধরনের ঘাপলা আছে বলেও ইঙ্গিত দিলেন শিরকে, ‘স্পট ফিক্সিংয়ের ব্যাপারটা যখন থেকে আলোচনায় এসেছে, পুরো বোর্ডকে ছাঁটাই করা হয়েছে। এখান দেখা যাক এ ধরনের পিচ ফিক্সিংয়ের শিকড় উপড়ে ফেলতে আদালতের নিয়োগ করা প্রশাসকেরা কী করে।’

শিরকে একজনের দিকে স্পষ্ট করে আঙুলও তুলেছেন—এমসিএর কিউরেটর পান্ডুরং সালগোয়ানকার, ‘পুনেতে ঐতিহাসিকভাবেই সিমিং উইকেট বানানো হয়। হঠাৎ করে কী এমন হলো? পান্ডুরংকে কি কেউ কিছু খাইয়েছিল? ও কি পাগল হয়ে গিয়েছিল?’ সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া।

Comments are closed.