‘মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ওপর বৈষম্যমূলক আচরণ করছে’

ওয়ান নিউজঃ মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ওপর বৈষম্যমূলক আচরণ করেছে বলে বিবৃতি দিয়েছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক বিশেষ দূত র‌্যাপোর্টিয়ার ইয়াংঘি লি। এছাড়া রোহিঙ্গাদের দুঃখ-দুর্দশা নিরসনে মিয়ানমার সরকারকে খুব দ্রুত পদক্ষেপ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে সোমবার রোহিঙ্গাদের সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে ওই বিবৃতি দেন ইয়াংঘি লি।

বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের ওপর বৈষম্যমূলক আচরণ করছে বলে প্রতীয়মান হয়। গত বছরের ৯ অক্টোবরের পর যেসব রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছেন, তাদের অনেকের সঙ্গে আমি কথা বলেছি। রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার কথা শুনেছি। যেমন- গলা কেটে ফেলা, গুলি বর্ষণ করা, বন্দি করে ঘরে আগুন দেওয়া, শিশুদের আগুনে ছুড়ে মারা, গণধর্ষণ ও অন্যান্য যৌন নির্যাতন।

এছাড়াও বিবৃতিতে রোহিঙ্গাদের প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ ও সহিংসতা বন্ধে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে মিয়ানমার সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি রোববার মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের সার্বিক অবস্থা পর্যবেক্ষণের জন্য ঢাকায় আসেন জাতিসংঘের বিশেষ দূত র‌্যাপোর্টিয়ার ইয়াংঘি লি। পাঁচদিনের সরকারি সফরে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের পাশাপাশি সরকারের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।

এর আগে ১০ থেকে ২১ জানুয়ারি ইয়াংঘি লি মিয়ানমার সফর করে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি নিয়ে একটি প্রতিবেদন পেশ করেন।

Comments are closed.