চকরিয়া পূর্ব বড় ভেওলায় ঈমাম-মুয়াজ্জিনকে কামরুজ্জামান সোহেলের ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ

এম.মনছুর আলম,চকরিয়া :

মহামারী করোনা সংক্রমণের প্রাদুর্ভাবে জাতির এ ক্রান্তিলগ্নে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের শ্রমজীবী, দিনমজুর ও দরিদ্র শ্রেণীর প্রায় ১২৫০ পরিবারে মাঝে খাদ্যসহায়তা দেওয়ার পাশাপাশি এবার পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ইমাম-মুয়াজ্জিনের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী তুলে দিলেন মানবিক তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা ও মানবাধিকার কর্মী, বিশিষ্ট সমাজ সেবক কামরুজ্জামান সোহেল।

তিনি পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের আওতাধীন ৪৮টি ও বিএমচর এলাকার ৫টি মসজিদের ১০৬জন ঈমাম মুয়াজ্জিনকে এ ঈদ সামগ্রী তাদের হাতে উপহার হিসেবে তুলে দেন।

শুক্রবার (২২মে) সকাল থেকে বিকেলে পর্যন্ত পূর্ব বড় ভেওলা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের মসজিদ মসজিদে গিয়ে ইমাম মুয়াজ্জিনদের মাঝে এ ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন।

তরুণ আওয়ামী লীগ নেতা ও মানবাধিকার কর্মী কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, মহামারী করোনা সংক্রমনের প্রাদুর্ভাবে দরিদ্র, দিনমজুর ও শ্রমজীবি নিম্ন আয়ের মানুষের পাশাপাশি এলাকার ইমাম-মুয়াজ্জিনরাও তাদের পরিবার পরিজন নিয়ে আর্থিক সংকটের মধ্যে চরম কষ্টে দিনাতিপাত করছে।

মানবিক বিবেচনা করে পূর্ব বড় ভেওলার ৯টি ওয়ার্ডের ৪৮টি মসজিদ ও বিএমচর ইউনিয়ন এলাকার ৫টি মসজিদে ১০৬ জন ঈমাম-মুয়াজ্জিনকে মানবিক সহায়তা হিসেবে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ঈদ উপহার সামগ্রী তুলে দেওয়া হয়।

তিনি আরও বলেন, কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতিতে অঘোষিত ভাবে লগডাউন শুরু হওয়ার পর থেকে কর্মহীন হয়ে খাদ্যসংকটে পড়ে নিম্ন আয়ের মানুষ। এলাকার দিনমজুর, দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের সুবিধা বঞ্চিত অসহায় পরিবারের দুর্দশা দেখে আমার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে অতীতের যেকোনো দুর্যোগের মতোই এবারও

বিগত এক সপ্তাহের অধিক সময় ধরে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে খাদ্যসহায়তা হিসেবে চাল, ডাল, তেল, আলু, পেঁয়াজসহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তাই ইউনিয়নের শ্রমজীবী, দিনমজুর ও দরিদ্র শ্রেণীর প্রায় ১২৫০ পরিবারে মাঝে

খাদ্যসহায়তা দেওয়ার পাশাপাশি এবারও পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ইমাম-মুয়াজ্জিনের মাঝে ঈদ সামগ্রী হিসেবে উপহার তুলে দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

Comments are closed.