যশোরে শিশুকন্যাকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা চোর বাবার

ইয়ানুর রহমান : যশোরে নিজের চার মাসের মেয়ে সুরাইয়াকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টা করেছেন লিটন হোসেন ওরফে চোর লিটন নামে এক চোরের। দগ্ধ শিশুটি বর্তমানে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। লিটন জেলা শহরের রেলগেট গোলপাতা হোটেল এলাকার বাসিন্দা।

দগ্ধ শিশুটির মা ঝরনা বেগম জানান, শনিবার (১৮ ফেব্রæয়ারি) রাত ১১টার দিকে তিনি সুরাইয়াকে নিয়ে ঘুমিয়ে ছিলেন। এ সময় তার স্বামী লিটন শেখ ও লিটনের প্রথম স্ত্রী শেফালি মশারিতে আগুন দিয়ে পালিয়ে যান। এতে সুরাইয়ার হাত-পা দগ্ধ হয়। এ অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ঝরনা আরও জানান, তার স্বামী লিটন দুই স্ত্রীর কথা গোপন করে তাকে তৃতীয় বিয়ে করেন। বিয়ের পর তিনি জানতে পারেন যে স্টেশন এলাকায় চোরাই মোবাইল ফোনের বেচাকেনা করে তার স্বামী। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে লিটন তার সংসারের খরচ দেন না। প্রায়ই তাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করেন।

যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডের সার্জারি চিকিৎসক আনসার আলী বলেন, শিশুটি এখন আশঙ্কামুক্ত।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন বলেন, এ ঘটনাটি তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Comments are closed.