অবশেষে যশোরে ভারতীয় ভিসা সেন্টারের কার্যক্রম শুরু

ইয়ানুর রহমান : অবশেষে মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে যশোরে ভারতীয় ভিসা সেন্টারের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা দুপুর ১টা পর্যন্ত ভারতীয় ভিসার আবেদন গ্রহণ করছেন।

যশোর শহরের নীলগঞ্জ সুপারী বাগান এলাকায় স্থাপিত সেন্টারের কর্মকর্তা মফিজুর রহমান জানান, যশোরের ব্যবসায়ী ও ভারত গমনকারীদের দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এ প্রসেসিং সেন্টারটি চালু করা হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে ১টা পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৮শ’ আবেদন গ্রহণ করা হয়েছে। ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করা হবে। সাতদিন পর আজকের আবেদনকারীদের ভিসাসহ পাসপোর্ট ফেরত দেয়া হবে।

এদিকে ভিসা প্রত্যাশীরা এ সেন্টারের কার্যক্রম শুরু হওয়ায় খুবই খুশি। এখন থেকে তাদের আর ঢাকা বা খুলনায় যেতে হবে না।

ভারত-বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের ইমপোর্ট এক্সপোর্ট সাব-কমিটির চেয়ারম্যান মতিউর রহমান বলেন, ভারত-বাংলাদেশে যাতায়াতের ক্ষেত্রে ভিসাপ্রাপ্তির জন্যে মানুষ বহু দুর্ভোগের শিকার হতো। সেই দুর্ভোগ কমাতে যশোরের এই প্রসেসিং সেন্টার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। এর আগে যশোর অঞ্চলের বাসিন্দাদের ভারতীয় ভিসার জন্য খুলনায় যেতে হতো। এতে সময় নষ্টের পাশাপাশি অর্থেরও অপচয় হতো।

সেন্টারের কর্মকর্তা মফিজুর রহমান আরো জানান, যশোর কেন্দ্রে ইউক্যাশের মাধ্যমে ভিসা আবেদনের টাকা জমা দেয়া যাবে। টুরিস্ট ভিসার আবেদনের ক্ষেত্রে ই-টোকেন লাগবে। তবে ৬৫ বছরের উপরের নাগরিকদের ক্ষেত্রে ই-টোকেন লাগবে না।

এছাড়া চিকিৎসা, ব্যবসা, সাংবাদিক, ছাত্র বা অন্য কোনো ভিসার ক্ষেত্রে ই-টোকেন দরকার হবে না।

এ বিষয়ে স্টেট ব্যংক অব ইন্ডিয়ার খুলনা শাখার প্রধান মানিক চন্দ্র চক্রবর্তী মুঠোফোনে জানান, যশোর কেন্দ্র চালু হওয়ায় খুলনা কেন্দ্রের উপর চাপ কমবে। যশোর, মাগুরা, নড়াইল, ঝিনাইদহ, সাতক্ষীরার নাগরিকরা যশোর কেন্দ্রে ভিসার জন্য আবেদন জমা দিতে পারবেন।

Comments are closed.