সন্ধ্যায় রাষ্ট্রপতিকে ১০ জনের নাম দেবে সার্চ কমিটি

ওয়ান নিউজঃ নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠনে রাষ্ট্রপতি গঠিত সার্চ কমিটির কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। আজ সোমবার (০৬ ফেব্রুয়ারি) কমিটির সদস্যরা নিজেদের মধ্যে তৃতীয় বৈঠকের মাধ্যমে ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করতে যাচ্ছেন। বৈঠক শেষে বিকেলেই উচ্চ পর্যায়ের এ কমিটি রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে দেখা করে দশজনের নাম তুলে দেবেন। এর মধ্যে অন্তত একজন নারীর নাম থাকবে। সন্ধ্যায় বঙ্গবভনে সার্চ কমিটির বৈঠকের বিষয়টি রাষ্ট্রপতির প্রেস সচিব জয়নাল আবেদিন নিশ্চিত করেছেন।

গত ২৫ জানুয়ারি সার্চ কমিটি গঠনে প্রজ্ঞাপন হওয়ার পর নিজেদের মধ্যে এ পর্যন্ত দুটি এবং বিশিষ্ট নাগরিকদের সঙ্গে দুটি বৈঠক করেছে সার্চ কমিটি। প্রথম বৈঠকে কমিটির পক্ষ থেকে নিবন্ধিত রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে পাঁচজনের নামের তালিকা ও বিশিষ্ট ১২ নাগরিকের পরামর্শ নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কমিটির সিদ্ধান্তের প্রতি সম্মান জানিয়ে বেশিরভাগ নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল সার্চ কমিটির কাছে নামের তালিকা পেশ করে। একই সঙ্গে তাদের ডাকে সাড়া দিয়ে রাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন পেশার বারো সদস্য বৈঠক করে পরামর্শ দিয়েছেন।

নিজেদের মধ্যে হওয়া দ্বিতীয় বৈঠকে রাজনৈতিক দলগুলোর কাছ থেকে পাওয়া নামের তালিকা যাচাই-বাছাই করে বিশজনের একটি সংক্ষিপ্ত তালিকা তৈরি করে সার্চ কমিটি। একই সঙ্গে আরো পাঁচ বিশিষ্ট নাগরিকের সঙ্গে বৈঠকের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর মধ্যে একজনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলাসংক্রান্ত খবর প্রকাশ হওয়ায় কমিটির পক্ষ থেকে চারজনকে আমন্ত্রণ জানিয়ে পরামর্শ নেয়া হয়।

উল্লেখ্য, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ গত ১৮ ডিসেম্বর থেকে ১৮ জানুয়ারি পর্যন্ত ৩১টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা শেষে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনে আপিল বিভাগের বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে ছয় সদস্যের একটি সার্চ কমিটি করে দেন। এ কমিটিকে সাচিবিক সহায়তা দিচ্ছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। কমিটি গঠনের পরবর্তী দশ কার্যদিবস তথা ৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে একজন নারীসহ বাছাই করা দশজনের নাম জমা দিতে সময় বেঁধে দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের দুই দিন আগেই রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সার্চ কমিটির সদস্যরা দেখা করছেন।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধানের ১১৮(১) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বর্তমান নির্বাচন কমিশন গঠনে ২০১২ সালে একই বিচারপতির নেতৃত্বে সার্চ কমিটি করা হয়েছিল। তারই ধারাবাহিকতায় আগামী নির্বাচন কমিশন গঠনেও রাষ্ট্রপতির নির্দেশে গঠিত সার্চ কমিটি কাজ করছে। বিদ্যমান কমিশনের প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ চারজনের মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী বুধবার। বাকি একজনের মেয়াদ শেষ হবে ১৫ ফেব্রুয়ারি। রাষ্ট্রপতি ৭ থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং অন্যান্য কমিশনারের নাম প্রকাশ করতে পারেন। এরই মধ্যে ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একজন নারী নির্বাচন কমিশনার থাকছেন।

Comments are closed.