বাংলাদেশের বিপক্ষেই আবার জ্বলে উঠতে চান করুণ নায়ার

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ বয়স ২৫ পার হয়ে গেছে। তবে গত বছর নভেম্বরেই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অভিষেক হয়েছিল তার। এরপর নিজের ক্যারিয়ারের মাত্র তৃতীয় টেস্টেই গড়লেন ইতিহাস। চেন্নাইতে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে খেললেন অনবদ্য ৩০৩ রানের ইনিংস। তাও আবার অপরাজিত।

তিন টেস্টের ৩ ইনিংস মিলিয়ে রান করেছেন ৩২০। এর মধ্যে এক ইনিংসেই ৩০০ প্লাস রান। ভারতজুড়ে তাকে নিয়ে মাতামাতি হয়েছিল খুব অল্প কয়েকদিন। কারণ, ধুমকেতুর মত হঠাৎ উদয় হওয়ার পর হঠাৎই যেন হারিয়ে যেতে বসেছেন করুণ নায়ার। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এতবড় একটা ইনিংস খেলার পর আর তাকে কোনো জায়গাতেই দেখা যাচ্ছে না। না ভারতের ওয়ানডে দল না টি-টোয়েন্টি দল।

শুধু তাই নয়, ৩০৩* রানের ধাক্কায় যে ঘরোয়া ক্রিকেটে হলেও আরও দু-একটি ভালো ইনিংস খেলবেন তা নয়। রঞ্জি ট্রফিতে করুন নায়ারের পরের ৬টি স্কোর শুনবেন? ১৪, ১২, ২৮, ৭, ১৪, ১২। সর্বোচ্চ ২৮। যাচ্ছেতাই ব্যাটিং। এ কারণে নির্বাচকদের নজরও খুব একটা টানতে পারছেন না তিনি।

তবুও নজর রাখছেন ভারতীয় নির্বাচকরা। বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের সিরিজের দলে রাখা হয়েছে ভারতের হয়ে দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে ট্রিপল সেঞ্চুরি হাঁকানো এই ব্যাটসম্যানকে। বাংলাদেশের বিপক্ষে ভালো খেলতে পারলেই কেবল পরবর্তীতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে দলে থাকার গ্যারান্টি মিলবে তার।

করুণ নায়ার এ কারণেই মূলতঃ বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচটিকে পাখির চোখ করে রেখেছেন। হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে আবারও ব্যাট হাতে জ্বলে উঠতে চান এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান।

তবে, যে অবস্থায় দলে ফিরেছেন তাতে সেরা একাদশে সুযোগ পাবেন কি না তিনি তা নিয়েই রয়েছে সংশয়। যদিও এসব নিয়ে এখন কোনো চিন্তা-ভাবনা নেই তার। করুন নায়ার বলেন, ‘আমি এসব নিয়ে এখন চিন্তা করছি না। যে কোনো কিছু ঘটতে পারে। যখনই আমি সুযোগ পাবো, তখনই তার জন্য প্রস্তুত।’

একটি ট্রিপল সেঞ্চুরি করার পর আবার চুপসে যাওয়াটাকেও খুব সাধারণভাবে নিচ্ছেন করুণ। তিনি বলেন, ‘এটা তো খেলা। আমি খেলতে ভালোবাসি। তবে, এটা ঠিক না যে আমি প্রতি ম্যাচেই, সব সময়ই বড় স্কোর করতে পারবো। প্রতিটি ম্যাচ থেকেই আমি শিক্ষা নিতে চাই এবং চেষ্টা করি পরের ম্যাচে নিজের সেরাটা দেয়ার জন্য।’

রঞ্জি ট্রফিতে বাজে ব্যাটিং নিয়েও খুব একটা চিন্তিত নন ভারতের এই ব্যাটসম্যান। তিনি বলেন, ‘প্রতিটি খেলোয়াড়েরই নিজস্ব কিছু প্রত্যাশা থাকে এবং প্রতিটি খেলোয়াড়ই চায় প্রতিটি ম্যাচে ভালো খেলার জন্য। এই দুটি চাওয়া কিন্তু খু্ব গুরুত্বপূর্ণ। আমার পক্ষে এই চাওয়ার বাইরেও কিছু করাটা কোনো সমস্যা নয়। কারণ আমি নিজের কিছু স্ট্যান্ডার্ড সেট করে নিয়েছি। এ কারণে আমি নিয়মিত কঠোর অনুশীলনও করে যাচ্ছি।’

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ফরম্যাটের সিরিজ মাত্র শেষ হলো। এবার বাংলাদেশের বিপক্ষেই এখন টিম ইন্ডিয়ার নজর ফেরানো উচিৎ বলে মনে করেন করুণ নায়ার। একই সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার সিরিজের দিকেও। তিনি বলেন, ‘টেস্টে আমরা এখন এক নম্বর দল। আমাদের অনেক ক্রিকেটারই প্রতিশ্রুতিবদ্ধ সাদা বলের ক্রিকেটে ভালো করার ব্যাপারে। তবে তার আগে অবশ্যই দলকে বাংলাদেশ এবং অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টের দিকে মনযোগ ফেরানো উচিত।’

Comments are closed.