মেলবোর্নে জয়ের অপেক্ষায় ভারত

ওয়ান নিউজ ক্রীড়া ডেক্সঃ মেলবোর্নে দ্বিতীয় দফার ব্যাটিং পরীক্ষায়ও কার্যত ফেল অস্ট্রেলিয়া। জয়ের জন্য ৩৯৯ রানের বিশাল টার্গেটের পেছনে ছুটতে নেমে অস্ট্রেলিয়া চতুর্থদিন শেষে তুলেছে ৮ উইকেটে ২৪৮ রান। দলের হয়ে শেষ ইনিংসে লড়াইটা চালিয়ে যাচ্ছেন অলরাউন্ডার প্যাট কামিন্স। ম্যাচ জিততে শেষদিনে অস্ট্রেলিয়ার চাই আরো ১৪১ রান। হাতে জমা মাত্র দুই উইকেট। ৬০ রান নিয়ে খেলছেন প্যাট কামিন্স। অপরাজিত ৫ রান নিয়ে তার সঙ্গে রয়েছেন নাথান লায়ন।  সম্ভাবনার হিসেবে এই ম্যাচে ভারতের জয় এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র। তবে পঞ্চমদিনে যাতে মেলবোর্নে বৃষ্টি না নামে-সেই প্রার্থনাও করতে হবে ভারতকে!

ম্যাচের চতুর্থদিন সকালে ৮ উইকেটে ১০৬ রান তুলে ভারত তাদের দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষণা করে। অস্ট্রেলিয়ার সামনে জয়ের জন্য ৩৯৯ রানের টার্গেট দাড় করায়। প্রথম ইনিংসে ১৫১ রানে গুটিয়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়া মেলবোর্নের দ্বিতীয় ইনিংসে সেই চ্যালেঞ্জ নিতে পারেনি। যথারীতি নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে শুরু করে। অস্ট্রেলিয়ার ওপেনিং জুটি এই ম্যাচে পুরোদুস্তর ব্যর্থ।

মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানরাও ইনিংস লম্বা পারেননি। ওসমান খাজা ও শন মার্শ উইকেটে টিকে থাকার পর আউট হন। অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস চতুর্থদিনের শেষবেলা পর্যন্ত গড়ায় মুলত লেজের সারিতে প্যাট কামিন্সের ব্যাটিংয়ের জন্য। মেলবোর্নে ব্যাটে-বলে চমৎকার সময় কাটে অস্ট্রেলিয়ার এই অলরাউন্ডারের। আট নম্বরে ব্যাট করতে নেমে দলের হয়ে এই টেস্টের একমাত্র হাফসেঞ্চুরির ইনিংস আসে তার ব্যাট থেকে। কামিন্সের ব্যাটে দায়িত্ববোধের যে ছোঁয়া মিলে তার ছিঁটেফোঁটা মিলেনি বাকি ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে। আর সমালোচনার এই দায়টা সবচেয়ে বেশি গিয়ে পড়ছে ওপেনার অ্যারেন ফিঞ্চের ঘাড়ে। অস্ট্রেলিয়ার এই ওপেনার চলতি সিরিজের ছয় ইনিংসে মাত্র একটি হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন। মেলবোর্নের উভয় ইনিংসেই সিঙ্গেল ডিজিটে আউট ফিঞ্চ।

চতুর্থদিন মেলবোর্নের উইকেটে যে খুব আনপ্লেয়েবল হয়ে পড়েছিলো-তাও কিন্তু নয়। তবে এই উইকেটে বড় রান তাড়া করতে হলে ব্যাটিংয়ে যে ধৈর্য এবং দক্ষতা দেখানোর প্রয়োজন ছিলো তা দেখাতে ব্যর্থ অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা।

ওপরের দিকের দু’তিন জন ব্যাটসম্যান প্যাট কামিন্সের মতো ব্যাট করতে পারতেন তাহলে সিরিজের তৃতীয় এই টেস্টের শেষ ইনিংসের লড়াই আরো জমতো।

ব্যাটিং-বোলিংয়ের মতো ফিল্ডিওও এই টেস্টে দারুন হয়েছে ভারতের। উইকেটের পেছনে চলতি সিরিজে উইকেটকিপার রিসাভ পান্থের শিকার এখন ১৯টি। বিদেশের মাটিতে কোন এক সিরিজে ভারতীয় উইকেটকিপারের সর্বোচ্চ ডিসমিসালের সৈয়দ কিরমানির রেকর্ডে এখনো রিভাস পান্থ ভাগ বসালেন। আরেকটি ক্যাচ নেয়া বা স্ট্যাম্পিং করতে পারলেই এক সিরিজে সর্বোচ্চ ডিসমিসালের নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়বেন পান্থ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: (৪র্থ দিন শেষে) ভারত ১ম ইনিঃ ৪৪৩/৭ ডিক্লেয়ার্ড (১৬৯ ওভারে, বিহারি ৮, আগারওয়াল ৭৬, পুজারা ১০৬, কোহলি ৮২, রাহানে ৩৪, রোহিত শর্মা ৬৩, পান্থ ৩৯, কামিন্স ৩/৭২)। অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিঃ১৫১/১০ (৬৬.৫ ওভারে, হ্যারিস ২২, ওসমান খাজা ২১, হেড ২০, পাইন ২২, বুমরা ৬/৩৩, জাদেজা ২/৪৫)। ভারত ২য় ইনিঃ ১০৬/৮ ডিক্লোয়ার্ড (৩৭.৩ ওভারে, বিহারি ১৩, আগারওয়াল ৪২, পান্থ ৩৩ , কামিন্স ৬/২৭)। অস্ট্রেলিয়া ২য় ইনিঃ ২৫৫/৮ (৮৩ ওভারে, খাজা ৩৩, মার্শ ৪৪, হেড ৩৪, পাইন ২৬, কামিন্স ৬০*, লায়ন ৫*, জাদেজা ৩/৮১, বুমরা ২/৫৩, সামি ২/৭০)

Comments are closed.