কক্সবাজার-১ আসনে এইচ এম তাজ উদ্দিনের নেতৃত্বে নৌকার পক্ষে ব্যতিক্রমী প্রচারণা

জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম ব্যুরো:

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের মহাজোটের প্রার্থী জাফর আলমের পক্ষে ব্যতিক্রমী প্রচারণায় সাধারণ মানুষের কাছে বেশ সাড়া ফেলেছে ছাত্রলীগ ।

এই আসনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ নেতা এইচএম তাজ উদ্দিনের নেতৃত্বে নৌকার পক্ষে নিরলস প্রচার-প্রচারণা চালাচ্ছেন শত শত ছাত্রলীগের নেতাকর্মী।

মাঠপর্যায়ে খবর নিয়ে জানা যায়, সবচেয়ে বেশি আকর্ষণীয় প্রচার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন চকরিয়া-পেকুয়াস্থ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

এসব কেন্দ্রীয় সমন্বয় কমিটির নেতাকর্মীরা সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পযর্ন্ত চকরিয়া পেকুয়ার বিভিন্ন এলাকায় চষে বেড়াচ্ছেন।

গত ১০দিন ধরে পৌঁছে দিচ্ছেন আওয়ামীলীগ সরকারের উন্নয়নের নানা ফিরিস্থি। যাচ্ছেন ভোটারের ঘরে ঘরে। ভোট প্রার্থানা করছেন নৌকার পক্ষে।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী স্বাক্ষরিত কক্সবাজার-১ আসনে সমন্বয়ক কমিটির প্রধান করা হয়েছে সাবেক উপ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক এইচ এম তাজউদ্দিনকে।

এদলে আরো রয়েছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মনসুর আলম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এইচ এম তারেকুল ইসলাম, শাবিপ্রবির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফিজ আল আসাদ, ঢাবির ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন,হারুন রশিদ রাসেল,আবছার হাসান রানা,আরফাতুল ইসলাম,মোহাম্মদ রিয়াদ, সোহরাব সাগর, চট্টগ্রাম ল’ কলেজ সভাপতি নোমান জিহাদ, কুবির সহ-সভাপতি মিসবাহ উদ্দিন, জবির বৃহত্তর চট্টগ্রাম ছাত্রকল্যাণ পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক এইচ এম নাহিম আরাফাত, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আল মামুন নয়ন, চবির শাহনেওয়াজ সুমন, শহীদ আসাদ, মির্জা জয়নাল, শাহেদুল ইসলাম, সায়মন ইসলাম বাপ্পী, আরমানুল ইসলাম, নাঈম আল শাফিন, আরমানুল ইসলাম, স্থানীয় ছাত্রলীগের মারুফ, রুবেল, পারভেজ, মিজান, হুমায়ুন, বেলাল, আবছার মাহমুদ, আনাস, রাজু, তারেক, নওশেদ, ছাদেক, রাফি সহ আরো অনেক ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ।

সমন্বয়ক কমিটির প্রধান এইচ এম তাজউদ্দিন বলেন, উন্নয়নের প্রতীক নৌকার পক্ষে তরুণ সমাজকে জাগিয়ে তুলতে এবং গ্রামের সহজ সরল মানুষকে আকৃষ্ট করতে ছাত্রলীগ এই কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, তরুণ সমাজের কাজকে আরো গতিশীল করতে এবং তারুণ্যের প্রথম ভোট স্বাধীনতার পক্ষে তথা নৌকার জয় নিশ্চিত করতে তৃণমূল পর্যায়ে কাজ শুরু করে দিয়েছি আমরা।

ছাত্রনেতা তাজ উদ্দিন বলেন, জাফর কুসুম কুমারী দাশের সেই ছেলে। ‘আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে।’ তিনি কথায় নয় কাজে বিশ্বাসী।

ছাত্রলীগ নেতা আসাদ বলেন, দেশ এখন ডিজিটালাইজেশনের পথ দিয়ে হাঁটছে, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে সরকারের সহায়ক হিসেবে হাঁটতে হবে। আগামীর ভবিষ্যত গড়তে নৌকায় ভোট দিতে তরুণদের কাছে একটি ভোট প্রার্থনা করছি।

চবি ছাত্রলীগ নেতা মনসুর বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামী নির্বাচনেও নৌকা জয়ের বিকল্প নেই। সেই বিষয়টি মূলত আমরা সাধারণ ভোটার, বিশেষ করে তরুণদের কাছে তুলে ধরছি। এতে ভোটাররাও আমাদের এই প্রচারণায় একাত্মতা প্রকাশ করে আগামী নির্বাচনে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জন্য নৌকার পক্ষেই ভোট দেওয়ার আশ্বাস দিচ্ছেন।

Comments are closed.