প্রধানমন্ত্রী সিলেট যাচ্ছেন আজ

ওয়ান নিউজ ডেক্স: আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিতে সিলেট যাচ্ছেন আজ (২২ ডিসেম্বর)। সিলেটের ঐতিহাসিক সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে নৌকা প্রতীকের সমর্থনে জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের জনসভায় যোগ দেয়ার পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী হযরত শাহ জালাল (রহ.) সহ তিন অলির মাজার জিয়ারত করবেন।

এদিকে, দলীয় সভানেত্রীর সিলেট সফরকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মধ্যে উচ্ছ্বাস বিরাজ করছে। তার এই সফর পুরো সিলেট বিভাগে আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের জন্য একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে বলে মনে করছেন নেতা-কর্মীরা।

সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র সাতদিন বাকি। এবার নির্বাচনে সব দল অংশগ্রহণ করছে। ফলে নির্বাচন তুমূল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলে আওয়ামী লীগ-বিএনপির প্রার্থী-সমর্থকরা নিজেদের দলীয় প্রার্থীর বিজয় নিশ্চিত করতে মরিয়া হয়ে মাঠে নেমেছেন।

সফরসূচি অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ বিমানের একটি বিশেষ ফ্লাইটে সিলেট এমএজি ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবেন। এরপর বিমানবন্দর থেকে সরাসরি তিনি হযরত শাহজালাল (রহ.), হযরত শাহপরান (রহ.) ও হজরত গাজী বোরহান উদ্দিন (রহ.) এর মাজার জিয়ারত করবেন।

দুপুরের খাবার ও বিশ্রামের জন্য সিলেট সার্কিট হাউসে অবস্থান শেষে বেলা আড়াইটার দিকে সিলেট নগরের সরকারি আলিয়া মাদরাসা মাঠে স্থানীয় আওয়ামী লীগ আয়োজিত নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিয়ে শেখ হাসিনা প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখবেন। এরপর বিকেল সাড়ে ৪টায় বিশেষ ফ্লাইটে তিনি ঢাকায় ফিরবেন।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় বেশ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ নেতা শেখ হাসিনার সঙ্গে সফরসঙ্গী হিসেবে থাকবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। ইতোমধ্যে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেনসহ কয়েকজন নেতা সিলেটে এসে জনসভার প্রস্তুতি তদারকি করছেন।

নির্বাচনের সপ্তাহখানেক আগে সিলেটে শেখ হাসিনার এই সফরকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা উজ্জীবিত। তারা মনে করছেন, নির্বাচনের আগে দলীয় সভানেত্রীর এই সফর সিলেটে ভোটের মাঠে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে। ফলে সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনে আওয়ামী লীগ ও মহাজোটের প্রার্থীদের পক্ষে জনসমর্থনও বাড়বে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, অন্যবার শেখ হাসিনার জনসভার মঞ্চে শতাধিক চেয়ার থাকলেও এবার নির্বাচনী আচরণবিধির কথা মাথায় রেখে মঞ্চের আকার ছোট রাখা হয়েছে। নৌকা প্রতীকের আকৃতিতে তৈরি করা মঞ্চে এবার থাকবে মাত্র ৩০টি চেয়ার। বসার সুযোগ পাবেন শেখ হাসিনার সফরসঙ্গী কেন্দ্রীয় নেতারা, সিলেট বিভাগের সংসদীয় আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী এবং চারটি জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক। এর মধ্যে দুই জেলার সভাপতি এবং এক সাধারণ সম্পাদক আবার তিনটি আসনে নৌকার প্রার্থী।

আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর সিলেট সফর প্রসঙ্গে সিলেট-১ আসনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ড. এ কে আব্দুল মোমেন গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমাদের দলীয় সভানেত্রীর এই সফর নৌকা প্রতীকের বিজয়ে দারুণভাবে ভূমিকা পালন করবে। তার সফর সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনের আওয়ামী লীগ নেতা-কর্মীসহ জনসাধারণকেও উজ্জীবিত ও নৌকা প্রতীকে ভোট দিতে উৎসাহিত করবে বলে বিশ্বাস করি।

এদিকে সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক মেয়র বদর উদ্দিন আহমদ কামরান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘জননেত্রী শেখ হাসিনার সিলেট সফর সফল করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। আলিয়া মাদরাসা মাঠে আওয়ামী লীগের জনসভায় জনসমুদ্রে পরিণত হবে। তার এই সফরে পুরো সিলেট বিভাগে নৌকা প্রতীকের পক্ষে ইতিবাচক বার্তা পৌঁছে যাবে।

Comments are closed.