হামিদুর রহমান আযাদ নির্বাচিত হলে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হবে

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:

কক্সবাজার-২ (মহেশখালী-কুতুবদিয়া) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট তথা ২০ দলীয় জোটের প্রার্থী এএইচএম হামিদুর রহমান আযাদের বিজয় হওয়া মানে গণতন্ত্রের বিজয়।

তাই আওয়ামী লীগের কারণে ধ্বংসপ্রায় গণতন্ত্র মুক্ত করতে ৩০ ডিসেম্বর হামিদ আজাদকে আপেল মার্কায় ভোট দিয়ে বিজয়ী করতে হবে।
শুক্রবার মহেশখালীর শাপলাপুরে নির্বাচনী কর্মীসমাবেশে জোট নেতারা এসব কথা বলেন।

ইউনিয়ন জায়ায়াতের সভাপতি আক্তার হোসেনের সভাপতিত্বে নির্বাচনি কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন জেলা জামায়াতের কর্মপরিষদ সদস্য ও শহর আমীর আলহাজ্ব সাইদুল আলম ।

তিনি বলেন, ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী হামিদুর রহমান আযাদ জয়ী না হলে দেশের গণতন্ত্র মুক্তি পাবে না। নির্বাচনে আপেল জয়ী না হলে গনতন্ত্র মুক্তি আন্দোলনের প্রধান নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি হবে না। এই নির্বাচনে আপেল জয়ী না হলে বিশ্ব ইসলামী আন্দোলনের অন্যতম শীর্ষ নেতা বিশিষ্ট পার্লামেন্টারিয়ান বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন আল্লামা দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর মুক্তি হবে না।

তাই গণতন্ত্র রক্ষায় সারা বাংলাদেশের নাগরিক সমাজের সাথে আপল মার্কার সমর্থনে মহেশখালী কুতুবদিয়ায় জনগনকেও জেগে ওঠতে হবে।
সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শহর জামায়াতের সহ-সেক্রেটারী মুহাম্মদ মহসিন, শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশন শহর সেক্রেটারী এম ইউ বাহাদুর, ছাত্রশিবির জেলা সভাপতি রবিউল আলম, মহেশখালী উপজেলা শিবিরের অর্থ সম্পাদক জালাল আহমদ প্রমূখ।

Comments are closed.