ক্লাস বন্ধ করায় অচল কুবি

ওয়ান নিউজঃ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) শিক্ষক সমিতির ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধের কারণে অচল হয়ে পড়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা কার্যক্রম। এদিকে ক্লাস ও পরীক্ষা শুরুর দাবিতে সাধারণ শিক্ষার্থীর ব্যানারে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন সাধারণ শিক্ষার্থী পরিষদ।

সোমবার ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকের সামনে এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সূত্র জানায়, কুবির একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির কোষাধ্যক্ষ তারিক হোসেন এবং অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক আশিখা আক্তারের বাসায় সন্ত্রাসী হামলার বিচার, নব নিযুক্ত প্রক্টর ড. কাজী মোহাম্মদ কামাল উদ্দিনকে সকল ধরনের প্রশাসনিক পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া, উপাচার্যের উপস্থিতিতে শিক্ষক সমিতি ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের শিক্ষকদের উপর হামলাকারী অধ্যাপক ড. সৈয়দুর রহমানকে আইকিউএসি থেকে অপসারণ ও উক্ত ঘটনার বিচার করা এবং গত বছরের ১ আগস্ট ঘটে যাওয়া খালেদ সাইফুল্লাহ হত্যাকাণ্ডের বিচার নিশ্চিত করাসহ ৬ দফা দাবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রেখে গত রোববার থেকে লাগাতার আন্দোলন করে আসছে শিক্ষকরা।

এদিকে ক্লাস-পরীক্ষা চালু ও শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদসহ ১১ দফা দাবিতে উপাচার্য বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে সাধারণ শিক্ষার্থী পরিষদ। শিক্ষার্থীরা জানান, শিক্ষকদের ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধে বাড়ছে সেশন জট, শিক্ষকদের বাসায় হামলার ঘটনায় আমরা বলির শিকার হবো কেন।

এ বিষয়ে কুবির উপ-পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নুরুল করিম চৌধুরী জানান, শিক্ষকদের দুই দিনের ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ১০টি পরীক্ষা স্থগিত হয়েছে,এর মধ্যে স্নাতক ৮ টি এবং স্নাতকোত্তর ২টি।
কুবির শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মোঃ আবু তাহের বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক নিরাপত্তার বিষয় নিয়ে উপাচার্য মহোদয়ের সাথে আমাদের কথা হয়েছে, জরুরি সিন্ডিকেট সভা আহবান করে তিনি তো নিরাপত্তার পদক্ষেপ নিতে পারেন, কিন্তু তিনি এখনো দৃশ্যমান কোন প্রদক্ষেপ নেননি। তাই আমরা লাগাতার ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন চালিয়ে যাবো। ’

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী সভা শেষে শিক্ষক নেতারা উপাচার্যের সাথে দেখা করে সন্তোষজনক পদক্ষেপের আশ্বাস না পেয়ে এ আন্দোলনের ডাক দেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ৬ দফা দাবিতে রোববার থেকে লাগাতার ক্লাস ও পরীক্ষা বন্ধের বিষয়টি জানানো হয়েছিল।

Comments are closed.