খাশোগি হত্যাকাণ্ড: ১৫ ঘাতকের ছবি প্রকাশ

ওয়ান নিউজ ডেক্স: অবশেষে তুরস্কের ইস্তানবুলের সৌদি আরবের দুতাবাসে সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত আরও কয়েকজনের ছবি প্রকাশ পেয়েছে তুরস্কের গণমাধ্যমে।

বুধবার (১৯ ডিসেম্বর) প্রকাশিত ছবিগুলোতে ইস্তানবুলের কনস্যুলেটের খাশোগিকে হত্যা করা সৌদির ঘাতক দলের ১৫ সদস্যকে দেখা গেছে।

তুরস্কভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইস্তানবুল পুলিশ ও তুরস্কের তদন্তকারিরা শহরের ৮০টি এলাকার ১৪৭টি ক্যামেরা থেকে তিন হাজার ৫০০টি ভিডিও ফুটেজ পেয়েছেন।ওসব ফুটেজে সৌদি ক্রাউন প্রিন্স সালমানের দুই নিকটস্থ কর্মকর্তাদের দেখা গেছে।

এদিকে হত্যার কথা স্বীকার করার পাশাপাশি এ ঘটনায় জড়িত দুই জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে বহিস্কারের কথাও সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যমের একটি খবরে বলা হয়েছে। বহিষ্কৃত দুই কর্মকর্তা হলেন, সৌদির রয়্যাল কোর্টের উপদেষ্টা সৌদ আল কাহতানি ও সহকারী গোয়েন্দা প্রধান আহমেদ আশিরি। উল্লেখ্য, সৌদ আল কাহতানি সৌদি যুবরাজের ডান হাত হিসেবে বিশেষ পরিচিত। ধারণা করা হচ্ছে, তিনি ১৫ সদস্যের ঘাতক দলের তত্ত্বাবধানে ছিলেন।

শুরু থেকেই তুরস্কের তদন্ত কর্মকর্তারা দাবি করেছেন, গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে খাশোগিকে হত্যা করতে সৌদি যুবরাজ তার দেহরক্ষীসহ ১৫ সদস্যের কিলিং স্কোয়াডকে তুরস্কে পাঠানো হয়। খাশোগি সেখানে প্রবেশের পরই তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার মরদেহ টুকরো টুকরো করে তা নিশ্চিহ্ন করতে অ্যাসিডের মাধ্যমে গলিয়ে ফেলে। আর এর জন্য মাত্র সাত মিনিট সময় নেন তারা। পুরো ঘটনাটির একটি অডিও তুরস্কের তদন্ত কর্মকর্তাদের কাছে আছে বলে দাবি করেছেন তারা।

খাশোগি নিখোঁজ হওয়ার ১৭ দিন পর নানা টালবাহানার পর সৌদি অ্যাটর্নি জেনারেল শেষ পর্যন্ত স্বীকার করতে বাধ্য হন খাশোগিকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। সম্প্রতি সৌদি কর্তৃপক্ষ খাশোগি হত্যায় জড়িত ১১ ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করেন। এদের মধ্যে পাঁচ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে তারা।

এদিকে শুরুতে সৌদি আরবের পক্ষে কথা বললেও সিনেটের চাপের মুখে এই ঘটনায় সৌদই আরব জড়িত থাকলে কঠোর পরিণতি দিতে হবে বলে সৌদি আরবকে হুশিয়ারি দিতে বাধ্য হন ট্রাম্প। প্রধান মিত্র যুক্তরাষ্ট্রের এমন বক্তব্যে অবশেষে বিষয়টি স্বীকার করে নিয়েছে সৌদি কর্ত্রৃপক্ষ। সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় প্রধান গণমাধ্যমের খবরকে বিশ্বাসযোগ্য বলে মন্তব্য করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “এটা অবশ্যই একটি ভালো প্রথম পদক্ষেপ। এ ঘটনায় যুক্ত আছে অনেক অনেক লোক।

অন্যদিকে, হত্যা ঘটনার কথা স্বীকার করলেও এই হত্যাকান্ডে সৌদি আরবের পক্ষ থেকে কোন নির্দেশ দেওয়া হয়নি বলে জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। তবে ঘটনায় রাষ্ট্রের গোয়েন্দা বাহিনীর অনেকেই জড়িত থাকায় সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের নেতৃত্বে একটি মন্ত্রিপর্যায়ের কমিটি গঠনের জন্যও নির্দেশ দিয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান।

তবে, তুর্কি ও মার্কিন তদন্ত সূত্রে খাশোগি নিখোঁজের ঘটনায় সৌদি যুবরাজের সংশ্লিষ্টতা থাকার আশঙ্কা প্রবল হয়ে উঠেছে বলে আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২ অক্টোবর ব্যক্তিগত কাজে ইস্তানবুলের সৌদি ডুতাবসে প্রবেশের পর নিহত হন বিখ্যাত সাংবাদিক জামাল খাশোগি।

Comments are closed.