বিএনপিকে ৬ দফার ইশতেহার দিল কোটা আন্দোলনকারীরা

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে বিএনপির কাছে ‘তারুণ্যের ইশতেহার ভাবনা’ নামে একটি প্রস্তাবনা তুলে ধরেছে কোটা সংস্কার আন্দোলনের নেতারা।

সোমবার বিকেল ৩টা ২০ মিনিটের দিকে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এসে তারা লিখিত ইশতেহার দেন।

এ সময় বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির তাদের ইশতেহারটি গ্রহণ করেন।

১৮ সদস্যদের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী ও সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম-আহবায়ক ফারুক হাসান।

বেকারত্ব নিরসনে কর্মসংস্থান, চাকরির নিয়োগ ব্যবস্থা, শিক্ষা ও গবেষণা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও শিক্ষক, যুব অ্যাসেম্বলি এবং বিবিধ শীর্ষ ছয়টি মূল দফার আলোকে এক গুচ্ছ প্রস্তাবনা তুলে ধরেন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা।

এর আগেই অবশ্য মোবাইল ফোনে ফারুক হাসান জানান, তারা ‘তারুণ্যের ইশতেহার ভাবনা’ শীর্ষক প্রস্তাবনা বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাছে হস্তান্তর করছেন। এরই অংশ হিসেবে বিএনপিকে দিচ্ছেন।

তিনি জানান, ঐক্যফ্রন্ট কার্যালয়ে গিয়ে ড. কামাল হোসেনের সঙ্গে দেখা করে তাকেও এই ইশতেহার দেয়া হবে। এভাবে পর্যায়ক্রমে সব দলকে দেয়া হবে।

কোটা সংস্কার আন্দোলনের এই নেতা আরও বলেন, ‘সত্যিকার অর্থে এদেশের তরুণ, বিশেষ করে লাখ লাখ শিক্ষিত বেকার কি চাই, এই ইশতেহারে সেটিই উল্লেখ করা হয়েছে। আমরা চাই, সব রাজনৈতিক দল তাদের নির্বাচনী ইশতেহারে তারুণ্যের জন্য আলাদা প্রতিশ্রুতি দিক।’

Comments are closed.