জামায়াত কে কোনো আসন দেয়া হয়নি, সবাই ধানের শীষের প্রার্থী

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, এবার জামায়াতে ইসলামীকে কোনো আসন দেয়া হয়নি। সবাই ধানের শীষের প্রার্থী হয়েছেন।

শুক্রবার বিকেলে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

আগেই চাউর হয়েছে, ২০ দলীয় জোটের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে ২৫টি আসন দেয়া হয়েছে। এ নিয়ে সংবাদমাধ্যমে খবরও বেরিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে জানতে চাওয়া হয় এবার জামায়াতে ইসলামীকে কয়টি আসন দেয়া হয়েছে? জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এবারের নির্বাচনে কেউ জামায়াত নেই। সুতরাং তাদের কোনো আসন দেয়া হয়নি। জামায়াতের সবাই এখন ধানের শীষের প্রার্থী হয়ে গেছেন।’

এ সময় নির্বাচন সুষ্ঠু হলে আওয়ামী লীগ ৩০টির বেশি আসন পাবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নির্বাচনের মাঠে খারাপ পরিবেশ তৈরি হলে উদ্ভূত পরিস্থিতির দায় সরকারকে নিতে হবেও বলেও হুঁশিয়ার দেন বিএনপি মহাসচিব।

নির্বাচন কমিশনের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনকে এখনও বলছি— যেসব অনিয়ম হচ্ছে, গ্রেফতার করা হচ্ছে, এসব বন্ধ করতে হবে। তা না হলে নির্বাচনের পরিবেশ কি হবে, তা আমরা বলতে পারছি না।’

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘এই সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন সম্ভব নয়। পুরো জাতিকে তারা সংঘাতের দিকে ঠেলে দিচ্ছে। এর দায়ও সরকারকেই নিতে হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী প্রমুখ।

এর আগে ২০ দলীয় জোট সূত্রে জানা গেছে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে ২৫টি আসনে চূড়ান্ত প্রার্থী দিয়েছে জামায়াতে ইসলামী।

এগুলো হলো— ঠাকুরগাঁও-২ মাওলানা আবদুল হাকিম, দিনাজপুর-১ মাওলানা মোহাম্মদ হানিফ, দিনাজপুর-৬ মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, নীলফামারী-২ মুক্তিযোদ্ধা মনিরুজ্জামান মন্টু, নীলফামারী-৩ মোহাম্মদ আজিজুল ইসলাম, রংপুর-৫ অধ্যাপক গোলাম রব্বানী ও গাইবান্ধা-১ মাজেদুর রহমান সরকার।

সিরাজগঞ্জ-৪ মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান, পাবনা-৫ মাওলানা ইকবাল হুসাইন, ঝিনাইদহ-৩ অধ্যাপক মতিয়ার রহমান, যশোর-২ আবু সাঈদ মুহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন, বাগেরহাট-৩ অ্যাডভোকেট আবদুল ওয়াদুদ, বাগেরহাট-৪ অধ্যাপক আবদুল আলীম, খুলনা-৫ অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার, খুলনা-৬ মাওলানা আবুল কালাম আযাদ, সাতক্ষীরা-২ মুহাদ্দিস আবদুল খালেক, সাতক্ষীরা-৩ মুফতি রবিউল বাশার, সাতক্ষীরা-৪ গাজী নজরুল ইসলাম, পিরোজপুর-১ শামীম সাঈদী, ঢাকা-১৫ ডা. শফিকুর রহমান, সিলেট-৫ মাওলানা ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী, সিলেট-৬ মাওলানা হাবিবুর রহমান, কুমিল্লা-১১ ডা. সৈয়দ আবদুল্লাহ মোহাম্মদ তাহের, চট্টগ্রাম-১৫ আ ন ম শামসুল ইসলাম এবং কক্সবাজার-২ হামিদুর রহমান আযাদ।

Comments are closed.