‘কেন্দ্র পাহারার নামে দেশে গৃহযুদ্ধের উসকানি দিচ্ছে বিএনপি’

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি ও জাতীয় ঐক্তফ্রন্টের নেতারা নির্বাচনে কেন্দ্র পাহারার নামে দেশে গৃহযুদ্ধের উসকানি দিচ্ছে। তারা আক্রমণাত্মক কথা বলে গৃহযুদ্ধের হুমকি দিচ্ছে।

তিনি বলেন, দলটির নেতারা ক্রমাগত আক্রমণাত্মক ভাষায় কথা বলে সংঘাতের পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইছে ও ভোটের শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নষ্ট করছে।

রাজধানীর র‌্যাডিসন ব্লু হোটেলে বৃহস্পতিবার এসথেটিকা ডারমাটোলজিস্টদের আন্তর্জাতিক সেমিনারে যোগ দেয়ার পর তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও বিএনপি নেতারা বিভিন্ন জায়গায় আক্রমণাত্মক মন্তব্য গৃহযুদ্ধের হুমকি দিচ্ছে। তারা বলছেন, নির্বাচনের দিন প্রতিটি কেন্দ্রে ৩শ’ থেকে ৫শ’ নেতা-কর্মী অবস্থান করবে। আমরাও যদি একইভাবে আমাদের নেতা-কর্মী কেন্দ্রে অবস্থান নিতে বলি, তাহলে কি গৃহযুদ্ধ হবে?

তিনি বলেন, ভোট কেন্দ্রে ৩শ’ থেকে ৫শ’ লোক থাকার অর্থ কি? এখন আমরাও যদি ৩শ’-৫ শ’ লোক কেন্দ্রে কেন্দ্রে রাখার ব্যবস্থা করি, তাহলে কি হবে? ভোট হবে? না গৃহযুদ্ধ হবে? ভোট হবে না সংঘাত হবে, ভোট হবে না ভায়োলেন্স হবে? আমি প্রশ্ন রাখতে চাই। অবিরামভাবে তারা অ্যাগ্রেসিভ ভাষায়, আক্রমণাত্নক ভাষায় কথা বলছে। নির্বাচন, গণতন্ত্র এসব তাদের ভাষায় নেই।

তিনি আরো বলেন, আজকে দেশের জনগণ একটা শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চায়। তারা অবাধ সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ নির্বাচন চায়। বিএনপি নেতারা আক্রমণাত্নক ভাষা ব্যবহার করে নির্বাচনের সুন্দর পরিবেশটাকে নষ্ট করছেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ড. কামাল হোসেনসহ ঐক্যফ্রন্টের অন্য নেতাদের এক কানাকড়ির দামও নেই, বিএনপি তাদের ব্যবহার করছে। সবকিছু নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে লন্ডন থেকে। আওয়ামী লীগকে ঠেকাতে বিএনপি জামায়াতকে ব্যবহার করবে। বিএনপি-জামায়াতের বন্ধুত্ব থাকবেই।

নির্বাচন কমিশন পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করছে বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের আচরণ এখনো আওয়ামী লীগের কাছে পক্ষপাতমূলক মনে হচ্ছে না। তারেক রহমানের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনে আওয়ামী লীগ অভিযোগ করলেও গণ-প্রতিনিধিত্ব অধ্যাদেশ তথা আরপিওতে কাভার না করায়, এ বিষয়ে ভিন্ন পথে সমাধান খুঁজছে তার দল।

কাদের বলেন, মনোনয়ন নিয়ে গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরের কোনো সত্যতা নেই। জরিপের ভিত্তিতেই মনোনয়ন দেয়া হচ্ছে। জয়ী হতে পারবে, এমন প্রার্থীদেরই মনোনয়ন দেয়া হবে। এ ক্ষেত্রে কোনও আপসের সুযোগ নেই।

Comments are closed.