ইউনূস ও প্যারিস মেয়রের যৌথ সংবাদ সম্মেলন

ওয়ান নিউজ ডেক্সঃ সুইজারল্যান্ডসের দাভোসে অনু্িষ্ঠত বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামে নোবেল লরিয়েট প্রফেসর মুহাম্মদ ইউনূস ও প্যারিসের মেয়র অ্যান হিদালগোর মধ্যে একটি যৌথ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে যুব বেকারত্বসহ প্যারিসের বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা মোকাবেলার জন্য নগরীটিতে সামাজিক ব্যবসা প্রতিষ্ঠায় ইউনূস সেন্টার ও প্যারিস নগরীর মধ্যে চুক্তি স্বাক্ষরের ঘোষণা দেওয়া হয়।

মেয়র হিদালগো ২০২৪ সালে অনুষ্ঠেয় গ্রীষ্মকালীন অলিম্পিক গেম্স আয়োজনে প্রফেসর ইউনূসের “তিন শূন্য”র লক্ষ্য – অর্থাৎ শূন্য দারিদ্র, শূন্য বেকারত্ব ও শূন্য নীট কার্বন নিঃস্বরণকে কেন্দ্রীয় ভূমিকায় রেখে প্যারিসের প্রার্থীতার ঘোষণা দেন। এ সময়ে প্রফেসর ইউনূস ও মেয়র হিদালগোর সঙ্গে ছিলেন প্যারিসের নেতৃস্থানীয় কোম্পানী হোটেল অ্যাকর, সুয়েজ ও জেসিডেকঅ-র প্রধান নির্বাহীগণ, যাঁরা ২০২৪ অলিম্পিকে প্যারিসের প্রার্থীতার পক্ষে কাজ করছেন।

সংবাদ সম্মেলনে মেয়র হিদালগো সামাজিক ব্যবসাকে শুধু ২০২৪ অলিম্পিক আয়োজনে তাঁদের প্রার্থীতার অংশ হিসবে নয় বরং প্যারিস নগরীর উন্নয়নে একটি দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা হিসেবেও সামাজিক ব্যবসার প্রতি তাঁর নগরীর আস্থা পুনর্ব্যক্ত করেন।

প্রফেসর ইউনূস বলেন, ইউনূস সেন্টার ও প্যারিস নগরীর মধ্যকার সহযোগিতা চুক্তিটি সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমে নগরীটির বিভিন্ন সামজিক সমস্যা দূরীকরণে একটি দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্কের প্রতিশ্রুতি। ২০২৪ অলিম্পিক আয়োজনের জন্য প্যারিসকে বাছাই করা হলে প্রফেসর ইউনূস এই অলিম্পিকের নির্মাণ নকশা ও সেবাসমূহের সকল বিষয়ে সর্বোচ্চ দিক-নির্দেশনা দিতে এই অলিম্পিক আয়োজনে পূর্ণ অংশগ্রহণ করবেন। তবে প্যারিসের প্রার্থীতার ফলাফল যাই হোক না কেন, ইউনূস সামাজিক ব্যবসা নগরীটিতে তার কার্যক্রম পুরোপুরি চালিয়ে যাবেন।

ইউনূস সেন্টার ও প্যারিস নগরীর মধ্যকার এই দীর্ঘমেয়াদী সম্পর্ক সামাজিক ব্যবসার মাধ্যমে নগরীটির বিভিন্ন সমস্যা – যেমন যুব বেকারত্ব, রিফিউজি সমস্যা, বৃদ্ধদের সমস্যা এবং অবসরে যাওয়া খেলোয়াড়দের সঙ্গে সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয় ও তারা কিভাবে আরো কার্যকর উপায়ে সমাজে অবদান রাখতে পারে – এ ধরনের সমস্যাগুলোর সমাধানের ভিত্তিতে গড়ে উঠবে।

অক্টোবর ২০১৬-তে প্যারিসের মেয়র অ্যান হিদালগো ও প্রফেসর ইউনূস ঊনবিংশ শতাব্দীতে নির্মিত প্যারিসের ১৯তম অ্যারন্ডিসমেন্টে অবস্থিত প্যারিসের ঐতিহাসিক ভবন “ল্য ক্যানঅ” সামাজিক ব্যবসা ভবন হিসেবে যৌথভাবে উদ্বোধন করেন। যার উদ্দেশ্য নগরীটির জন্য বিভিন্ন সামাজিক ব্যবসা সৃষ্টি করতে উদ্যোক্তাদের এখানে নিয়ে আসা এবং ভবনটিকে সামাজিক ব্যবসার একটি কেন্দ্রে পরিণত করা। মেয়র ইউনূস সেন্টারকে এই ভবনে তার অফিস স্থাপনের জন্যও আমন্ত্রণ জানান।

এছাড়াও প্যারিস নগরী ইউনূস সেন্টার ও গ্রামীণ ক্রিয়েটিভ ল্যাবের সঙ্গে যৌথভাবে নভেম্বর ৬-৭, ২০১৭ প্যারিসে অনুষ্ঠেয় “গ্লোবাল স্যোশ্যাল বিজনেস সামিট ২০১৭”-এর অন্যতম আয়োজক। টাউন হলসহ প্যারিস নগরীর বিভিন্ন স্থাপনা এই সম্মেলনের বিভিন্ন সেশন অনুষ্ঠানের কাজে ব্যবহার করা হবে।

Comments are closed.