ঝিনাইদহের শৈলকুপা থেকে এবার মাদ্রাসা ছাত্রকে তুলে অপহরন ! ঢাকার গাবতলি থেকে উদ্ধার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের শৈলকুপার ভাটই বাজার থেকে মোস্তাফিজুর রহমান ইমন নামে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে সাদা পোশাকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার পর ঢাকার গাবতলি এলাকায় পাওয়া গেছে। বুধবার সন্ধ্যায় তাকে কে বা কারা উঠিয়ে নিয়ে যায়।

 

ইমন কুষ্টিয়ার মৃত মসিউর রহমানের ছেলে। বাবার মৃত্যুর পর সে শৈলকুপার কাজীপাড়া গ্রামে মায়ের সাথে নানা বাড়ি থাকতো। সে মাদ্রাসায় পড়ালেখার পাশাপাশি আরএফএল কোম্পানীর একটি শোরুম দিয়ে ভাটই বাজারে ব্যবসা করছিলো।

 

প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, বুধবার রাতে ইমন ভাটই বাজারের রাস্তা দিয়ে হাটছিলো। এ সময় একটি সাদা মাইক্রোবাসে অজ্ঞাত কিছু ব্যক্তি নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে উঠিয়ে নিয়ে যায়।

 

নিখোঁজ হওয়ার পর ইমনের স্বজনরা তার ব্যক্তিগত ০১৮৬২-৯৯১৮১১ নাম্বারের সেল ফোনে কল করে কান্নার আওয়াজ পান। বিষয়টি শৈলকুপা থানা পুলিশকে জানানো হলে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে ম্যাসেজ পাঠায়।

 

এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ওসি তরিকুল ইসলাম জানান, ইমনকে কে বা করা তুলে নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার ইমনের চাচা সিআইডির পরিদর্শক আমাকে জানান, ইমনকে ঢাকার গাবতলি থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। ওসি বলেন, কে নিয়ে গেল আর কি ভাবে উদ্ধার হলো তা আমরা জানি না।

Comments are closed.